আজ- রবিবার, ২৪শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১০ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১১ই জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি
বাংলার কথা
Header Banner

হিমায়িত খাবার শরীরের যে ক্ষতি করে

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp

জান্নাত আরা ঊর্মি ০

হিমায়িত খাবার রান্না সহজ হলেও তা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। দীর্ঘদিন এ খাবার খেলে স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ঝুঁকি ডেকে আনতে পারে।

ব্যস্তজীবনে সময়ের অভাবে আমরা অনেকেই হিমায়িত খাবার কিনে খাই। পরোটা, রুটি, সসেজ, মোমো, শিঙাড়া ও সমুচা ছাড়াও আরও অনেক খাবার। অনেকে শাকসবজি ও মাছ-মাংসও হিমায়িত অবস্থায় কিনে খাই। এসব খাবারের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া রয়েছে।

কারণ এসব খাবারে অনেক সময় এমন কিছু রাসায়নিক উপাদান ব্যবহার করা হয়, যা স্বাস্থ্যের ক্ষতি করে এবং বিভিন্ন রোগ হতে পারে।

 

আসুন জেনে নিই হিমায়িত খাবারের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে-

১. হিমায়িত ও প্রক্রিয়াজাত খাবারের মাধ্যমে প্রায় ৭০ শতাংশ সোডিয়াম গ্রহণের সম্ভাবনা থাকে। সোডিয়াম উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি বাড়ায়, ‍যা থেকে হৃদরোগ ও স্ট্রোকের মতো ভয়াবহ রোগ হতে পারে।

২. হিমায়িত খাবারে ‘ফ্রোজেন পিৎজা’ ও ‘পাই’তে কিছুটা ক্ষতিকারক ‘হাইড্রোজিনেটেড তেল ব্যবহার করা হয়। এই তেল হলো প্রক্রিয়াজাত করা, যাতে ট্রান্স-ফ্যাটের পরিমাণ থাকে ও শরীরের জন্য ক্ষতিকর।

৩. হিমায়িত খাবারে ‘মনোসোডিয়াম গ্লুটামেট’ বা এমএসজি ব্যবহার করা হয়, যা এক ধরনের স্বাদ বর্ধক উপাদান। ফলে মাথাব্যথা, গলা-ফোলা সমস্যা হতে পারে ও সারা শরীর ঘাও দিতে পারে।

৪. হিমায়িত ও প্রক্রিয়াজাত খাবারে হাজারও সিনথেটিক রাসায়নিক ব্যবহার করা হয়, যা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর।

হিমায়িত ও প্রক্রিয়াজাত খাবার এড়িয়ে চলা ভালো। সবসময় সতেজ ও টাটকা খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন।

লেখক: নিউট্রিশনিস্ট অ্যান্ড ডায়েট কনসালট্যান্ট, জে বি ডায়াগনস্টিক কমপ্লেক্স, খুলনা।

সূত্র: যুগান্তর

বাংলার কথা/ডিসেম্বর ২৯, ২০২০

এই রকম আরও খবর

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn