আজ- বৃহস্পতিবার, ৪ঠা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৯শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২০শে রজব, ১৪৪২ হিজরি
বাংলার কথা
Header Banner

হ্যালো আরএমপি অ্যাপস চালু

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp

নিজস্ব প্রতিবেদক ০
পুলিশ বাহিনীতে মাদকসেবীর কোনো স্থান নেই বলে আবারও কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন পুলিশ মহাপরিদর্শক ড. বেনজীর আহমেদ। তিনি বলেন, আমরা এ ব্যাপারে দৃঢ় প্রত্যয়ী। তাই বিষয়টি সবার কাছে পরিষ্কার করতে চাই।

রবিবার (২৭ ডিসেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজশাহী নগরীর সিঅ্যান্ডবি মোড়ে রাজশাহী মহানগর পুলিশের নির্মাণাধীন সদর দফতরে অপারেশন কন্ট্রোল অ্যান্ড মনিটরিং সেন্টারসহ কিশোর গ্যাং ডিজিটাল ডাটাবেজ ও হ্যালো আরএমপি অ্যাপসের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আইজিপি এ কথা বলেন। এসময় আদালতে দাখিল করা মেজর সিনহা হত্যা মামলার চার্জশিটে কক্সবাজারের তৎকালীন এসপি এবিএম মাসুদ হোসেনের দায়িত্ব অবহেলার যে বিষয় উল্লেখ করা হয়েছে, তার প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে আইজিপি আলোচিত এই ঘটনাটি আদালতে বিচারাধীন উল্লেখ করে কোনো মন্তব্য করতে চাননি।

অপারেশন কন্ট্রোল অ্যান্ড মনিটরিং সেন্টারসহ কিশোর গ্যাং ডিজিটাল ডাটাবেজ ও হ্যালো আরএমপি অ্যাপসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন আরএমপি কমিশনার মোঃ আবু কালাম সিদ্দিক ও রাজশাহী রেঞ্জ ডিআইজি মোঃ আব্দুল বাতেন সহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ বলেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে সৃজনশীল প্রযুক্তির যথাযথ প্রয়োগ এবং তার সময়োচিত ব্যবহারই বাংলাদেশের আর্থসামজিক উন্নয়ন ও সমৃদ্ধি নিশ্চিত করতে পারে। সেই লক্ষ্য সামনে রেখে প্রধানমন্ত্রী তার দিন বদলের নন্দিত সনদ ‘রূপকল্প ২০৪১’ দিয়েছেন। এর মধ্যে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ প্রতিষ্ঠার এক সুচিন্তিত কর্মসূচি অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় রাজশাহী মেট্রোপলিটন এলাকার অপরাধ ও অপরাধীকে চিহ্নিতকরণ, অপরাধ দমন, জনসাধারণের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে নতুন অ্যাপস উদ্বোধন করা হলো। এটি মেট্রোপলিটন এলাকার আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে রাখতে অন্যতম ভূমিকা রাখবে বলে প্রত্যাশা করেন আইজিপি।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, এরই মধ্যে রাজশাহী মেট্রোপলিটন এলাকার ‘কিশোর গ্যাং ডিজিটাল ডাটাবেজ’ তৈরি করা হয়েছে। কিশোর গ্যাংয়ের প্রায় ৪০০ কিশোরের বিস্তারিত তথ্য এ ডিজিটাল ডাটাবেজে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। পুলিশ কমিশনার মোঃ আবু কালাম সিদ্দিতের দূরদৃষ্টিসম্পন্ন নির্দেশনায় তৈরি করা হয়েছে কিশোর গ্যাং এর বিস্তারিত তথ্য সম্বলিত এই ডিজিটাল ডাটাবেজ। কিশোর অপরাধ দমনে পুলিশ কমিশনারের এই ‘ইনোভেটিভ আইডিয়াটি’র সুফল রাজশাহী মহানগরবাসী পেতে শুরু করেছে। এই ডিজিটাল ডাটাবেজে কিশোর অপরাধের সাথে জড়িত কিশোরদের বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত যেমন তাদের বর্তমান ও স্থায়ী ঠিকানা, অভিভাবকের নাম, প্রাতিষ্ঠানিক ঠিকানা, তাদের সম্ভাব্য চলাচলের এলাকা, মোবাইল নম্বর, ছবি সহ প্রয়োজনীয় অন্যান্য তথ্যাদি স্থানীয় থানা পুলিশের মাধ্যমে সংগ্রহ করে এই “ডিজিটাল ডাটাবেজ” তৈরি করা হয়েছে। বিশেষ করে কিশোর অবস্থায় যারা বিভিন্ন অপরাধের সাথে জড়িত হয়ে পড়েছে, তাদেরকে স্থানীয় থানা পুলিশের মাধ্যমে তাদের দৈনন্দিন কার্যক্রম মনিটরিং করা হচ্ছে, যেন ভবিষ্যতে কোন কিশোর ভুল পথে না যায়।

অনুষ্ঠানে আরো জানানো হয়, রাজশাহী মেট্রোপলিটন এলাকার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে আরএমপি অ্যাপস উদ্বোধন করা হলো। রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের অপারেশন কন্ট্রোল অ্যান্ড মনিটরিং সেন্টারের মাধ্যমে শহর এলাকার গুরুত্বপূর্ণ স্থান ও মোড়ে স্থাপন করা সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে সার্বক্ষণিক মনিটর করা হবে। এর মাধ্যমে রাজশাহী মেট্রোপলিটন এলাকায় সন্দেহভাজন ও অপরাধীদের গতিবিধি পর্যবেক্ষণ, দ্রুত সময়ের মধ্যে অপরাধীকে শনাক্তকরণ সহজ হবে। এছাড়া এখন থেকে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের কাছে তথ্য প্রদান ও অনলাইনে অভিযোগ করা যাবে। বাংলাদেশ পুলিশের জরুরি সেবা যেমন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট, অনলাইন জিডি এবং ৯৯৯ জাতীয় জরুরি সেবাসমূহ এ অ্যাপে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এ অ্যাপ থেকে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের সব কর্মকর্তাদের ফোন নম্বর, মোবাইল নম্বর এবং ই-মেইল ঠিকানা পাওয়া যাবে। এছাড়াও এ অ্যাপের মাধ্যমে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের ওয়েব পোর্টাল এবং অনলাইন নিউজ পোর্টালটিও দেখা যাবে।

বাংলার কথা/ডিসেম্বর ২৭, ২০২০

এই রকম আরও খবর

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn