আজ- শনিবার, ৬ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২২শে রজব, ১৪৪২ হিজরি
বাংলার কথা
Header Banner

হাতীবান্ধায় শীতের আমেজে ভাপা পিঠা বিক্রির ধুম

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
সিদরাতুল মোত্তাকিন, হাতীবান্ধা (লালমনিরহাট) ০
ছয় ঋতুর দেশ বাংলাদেশ। এদের মধ্যে শীত হচ্ছে অতি পরিচিত একটি ঋতু। অন্যান্য ঋতুর মতো শীতও তার নিজ বৈশিষ্ট্য নিয়ে আগমন ঘটায়। শীত মানে মানুষের মনে কনকনে ঠান্ডার অনূভুতি। এই শীতকালেই দেখা মিলে হরেক রকমের পিঠা।
ভাপা হচ্ছে এদের মধ্যে জনপ্রিয় একটি পিঠা। শীত মৌসুমে শহর ও গ্রাম অঞ্চলের বিভিন্ন জায়গায় দেখা যায় ভাপা পিঠার ছোট ছোট দোকান।
উত্তর অঞ্চলের সীমান্তবর্তী জেলা লালমনিরহাট। ইতিমধ্যেই শীতের তীব্র প্রকোপ পড়েছে জেলাটিতে। এই শীতকে কেন্দ্র করে ধুম পড়েছে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় ভাপা পিঠা বিক্রির। উপজেলার প্রায় সকল অলি-গলিতে জমে বসেছে ভাপা পিঠার দোকান।
প্রতিদিন সকাল ও সন্ধায় পাওয়া যাচ্ছে এই সুস্বাদু ভাপা পিঠা।
প্রতিটি পিঠা বিক্রি হচ্ছে ৫ থেকে ১০ টাকায়। পিঠা প্রেমিদের উপচে পড়া ভিড় দেখা যাচ্ছে  দোকানগুলোতে।
পিঠা বিক্রেতা আসাদুজ্জামান বলেন, শীতের শুরু থেকে দোকানে কাজের অনেক চাপ। ভাপা পিঠা তৈরি করতে লাগে গুড়, নারিকেল, বাদাম ও সিদ্ধ চাল।
তিনি বলেন, ‘বর্তমানে প্রতিদিন সাত কেজি চালের পিঠা বিক্রি করি।
প্রতিদিন বিকেল তিনটা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত চলে পিঠা বানানো ও বিক্রি। দৈনিক এক  হাজার থেকে দেড় হাজার টাকা বিক্রি হয়।’
বাংলার কথা/ডিসেম্বর ১৯, ২০২০

এই রকম আরও খবর

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn