মঙ্গলবার , ১৫ নভেম্বর ২০২২ | ১৫ই মাঘ, ১৪২৯
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. খুলনা বিভাগ
  4. খেলাধুলা
  5. চট্টগ্রাম বিভাগ
  6. জাতীয়
  7. ঢাকা বিভাগ
  8. প্রচ্ছদ
  9. ফিচার
  10. বরিশাল বিভাগ
  11. বিনোদন
  12. মতামত
  13. ময়মনসিংহ বিভাগ
  14. রংপুর বিভাগ
  15. রাজনীতি

হাতীবান্ধায় গাঁজা ও ইয়াবাসহ মাদক সম্রাট নজু গ্রেপ্তার

প্রতিবেদক
BanglarKotha-বাংলারকথা
নভেম্বর ১৫, ২০২২ ১২:১৭ অপরাহ্ণ

সিদরাতুল মোত্তাকিন, লালমনিরহাট প্রতিনিধি :
লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর’র অভিযানে নজরুল ইসলাম নজু (৫০) নামে এক মাদক সম্রাটকে গাঁজা ও ইয়াবাসহ আটক করা হয়েছে। এ সময় ৩৬৫ পিস ইয়াবা ও ৪ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়।
মঙ্গলবার (১৫ নভেম্বর) সকাল ১১টায় উপজেলার অডিটরিয়াম চত্তরের আনন্দ আবাসিকে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়।
আটককৃত নজরুল ইসলাম নজু উপজেলার বাড়াই পাড়া এলাকার বাসিন্দা। এছাড়া সে আনন্দ আবাসিকের মালিক। সেই আবাসিকে প্রকাশ্যে চলতো মাদক, জুয়া ও দেহ ব্যবসা।
লালমনিরহাট মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক খাইরুল বাশার বলেন, উপজেলার অডিটরিয়াম চত্তরের লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়কের পাশে অবস্থিত এই আনন্দ আবাসিকে নজরুল ইসলাম নজু দীর্ঘ দিন ধরে মাদক ব্যবসা করে আসছে। এ বিষয়ে স্থানীয়রা একটি অভিযোগ করেছে আমাদের কাছে। এমনকি তার একটি ভিডিও আমাদের হাতে এসেছে। তারই প্রেক্ষিতে আনন্দ আবাসিকে অভিযান চালাই এবং তল্লাশী চালিয়ে গাঁজা ও ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। পরে নজরুল ইসলাম নজুকে আটক করা হয়। তিনি আরও বলেন, আমরা এখন তাকে নিয়ে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করবো। তারপর হাতীবান্ধা থানায় একটি মামলা রুজু করবো।
এ বিষয়ে হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ আলম বলেন, বিষয়টি জানা নেই। আমি বাইরে আছি।
তবে খোঁজ খবর নিচ্ছি।
উল্লেখ্য; গত সোমবার (৩১ অক্টোবর) বিকেলে হাতীবান্ধা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)সহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেছেন স্থানীয়রা। যার অনুলিপি লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর, হাতীবান্ধা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও প্রেসক্লাব বরাবরে দেয়া হয়েছে। সেই গণপিটিশনে বিভিন্ন স্তরের প্রায় শতাধিক স্থানীয় স্মাক্ষর করেন। এদিকে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মাদক সম্রাট নজরুল ইসলাম নজু সকল অপকর্মের সাথে জড়িত। তার বিরুদ্ধে থানায় মাদক, জুয়া, দেহ ব্যবসা, নারী পাচার, চুরি, ছিনতাই, ধর্ষণের প্রায় ১৫টিরও বেশি মামলা রয়েছে।

সর্বশেষ - প্রচ্ছদ

আপনার জন্য নির্বাচিত