রবিবার , ১৩ নভেম্বর ২০২২ | ২২শে মাঘ, ১৪২৯
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. খুলনা বিভাগ
  4. খেলাধুলা
  5. চট্টগ্রাম বিভাগ
  6. জাতীয়
  7. ঢাকা বিভাগ
  8. প্রচ্ছদ
  9. ফিচার
  10. বরিশাল বিভাগ
  11. বিনোদন
  12. মতামত
  13. ময়মনসিংহ বিভাগ
  14. রংপুর বিভাগ
  15. রাজনীতি

স্বামীকে বশে আনতে জ্যোতিষীকে ৭৫ লাখ টাকা দিলো স্ত্রী

প্রতিবেদক
BanglarKotha-বাংলারকথা
নভেম্বর ১৩, ২০২২ ১:২৫ অপরাহ্ণ

নিউজ ডেস্ক :
প্রিয় মানুষকে পেতে বা সংসারে ‍সুখ আনতে কবিরাজ কিংবা তান্ত্রিকের শরণাপন্ন হওয়া নতুন কোনো ঘটনা নয়। নেটদুনিয়ায়, এমনকি গণমাধ্যমেও এমন খবর প্রায়ই দেখা যায়। তবে ভারতের মুম্বাইয়ের আন্ধেরিতে যে ঘটনা ঘটেছে তা একটু বেশি বেশিই।

স্বামীর ওপর নিয়ন্ত্রণ আনতে এক জ্যোতিষীকে অর্থ ও স্বর্ণালংকার মিলে প্রায় ৫৯ লাখ রুপি (বাংলাদেশি টাকায় ৭৪ লাখ ৩৪ হাজার টাকা) দিয়ে দেন আন্ধেরির এক নারী। সম্প্রতি ওই জ্যোতিষীকে আটক করেছে মুম্বাইয়ের পোয়াই থানা-পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, দুই সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে আন্ধেরিতে বসবাস করতেন ৩৯ বছর বয়সী এক ব্যবসায়ী। তাদের সংসারে নিত্যদিনই অশান্তি লেগে থাকতো। দাম্পত্য কলহের জেরে ওই নারী প্রাক্তন প্রেমিক পরেশ গাডার সঙ্গে পুনরায় যোগাযোগ শুরু করেন।

পরেশ গাডার সঙ্গে ১৩ বছর ধরে স্ত্রীর সম্পর্ক ও পুনরায় যোগাযোগের কথা জানতে পেরে যান ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী। এর পরপরই বিবাহবিচ্ছেদের হুমকি দেন তিনি। ভয় পেয়ে প্রেমিকের সঙ্গে সবধরনের যোগাযোগ বন্ধ করে দেবেন বলে কথা দেন ওই নারী।

এরইমধ্যে স্ত্রীকে না জানিয়ে দীপাবলি উপলক্ষে নিজের কোম্পানির কর্মচারীদের বোনাসবাবদ ৩৫ লাখ রুপি নিজের ঘরের আলমারিতে রাখেন ব্যবসায়ী। এক সপ্তাহ পর আলমারিতে রাখা টাকা খুঁজে না পেয়ে স্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন তিনি। স্ত্রীর উত্তরে অসঙ্গতি দেখে, বড় ভাইকে ডেকে আনেন ওই ব্যবসায়ী।

দুই ভাইয়ের ক্রমাগত জিজ্ঞাসাবাদের মুখে জ্যোতিষীকে টাকা দেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেন ওই নারী। জানান, প্রতিদিনের দাম্পত্য কলহ থেকে মুক্তি পেতে ও স্বামীকে বশে আনতে তান্ত্রিকের খোঁজ করছিলেন তিনি। একপর্যায়ে ইন্সটাগ্রামের মাধ্যমে কথা হয় বাদল শর্মা নামের এক জ্যোতিষীর সঙ্গে। তাকে তিনি নগদ ৩৫ লাখ রুপি ও ২৪ লাখ রুপির গয়না দিয়েছেন।

ওই নারী আরও জানান, পরেশ গাডার মাধ্যমে বাদল শর্মার কাছে পৌঁছান তিনি। কালো জাদুর সাহায্যে সব সমস্যার সমাধান করে দেবেন বলে আশ্বাস দেন বাদল। কিন্তু তার বিনিময়ে ওই নারীকে প্রচুর টাকা খরচ করতে হবে বলে জানান জ্যোতিষী। জ্যোতিষীর কথা মতোই স্বামীকে না জানিয়েই বাড়িতে রাখা নিজের সব স্বর্ণালংকার ও স্বামীর টাকা জ্যোতিষীকে দিতে থাকেন তিনি।

বিস্তারিত শোনার পর শুক্রবার (১১ নভেম্বর) পুলিশের কাছে অভিযোগ দেন ওই ব্যবসায়ী। অভিযোগ পেয়েই তদন্ত শুরু করে পোয়াই থানা-পুলিশ। একপর্যায়ে জ্যোতিষী বাদল শর্মা এবং ওই নারীর প্রেমিককে আটক করে পুলিশ। পরে জোতিষীর আস্তানায় তল্লাশি চালিয়ে সব টাকা ও স্বর্ণালংকার উদ্ধার করা হয়।

সূত্র: দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

সর্বশেষ - প্রচ্ছদ

আপনার জন্য নির্বাচিত

ভাসানী মেহনতি মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠায় আজীবন কাজ করে গেছেন: প্রধানমন্ত্রী

ইরানে মাহসার মৃত্যুর প্রতিবাদে বিক্ষোভ, একজনের মৃত্যুদণ্ড

কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব শুরু

জাপানিজ এনকেফালাইটিস ভাইরাসের রেড জোন রাজশাহী

শিগগিরই র‌্যাবের ওপর থেকে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা উঠতে পারে : আসাদুজ্জামান খান

বিএনপি জনগণকে বিভ্রান্তির মধ্যে ফেলছে : জাহিদ মালেক

পুঠিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অত্যাধনিক সেরাম ইলেক্ট্রোলাইট মেশিন স্থাপন

উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার পর জাপান-যুক্তরাষ্ট্রের মহড়া

গ্যাসের পাইপলাইনের কাজ দ্রুত শেষ করতে নির্দেশ মন্ত্রিসভার

বাংলাদেশ রেলওয়ে ভ্রাম্যমাণ জাদুঘর এখন নরসিংদী।