সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ক্ষুদ্র মেরামতের অর্থ লুটপাটের অভিযোগ


মাসুদ রানা রাশেদ, লালমনিরহাট o

লালমনিরহাট জেলার লালমনিরহাট সদর উপজেলার বিভিন্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্ষুদ্র মেরামতের অর্থ ১কোটি ২২লক্ষ টাকা লুটপাট হচ্ছে মর্মে অভিযোগ উঠেছে।

জানা যায়, ২০১৯-২০২০ অর্থবছরে লালমনিরহাট সদর উপজেলার ১২টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১৮লক্ষ ও ৫২টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১কোটি ৪লক্ষ টাকা বরাদ্দ পায়। সর্বমোট ৬৪টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ১কোটি ২২লক্ষ টাকা বরাদ্দ পায়।

অভিযোগ উঠেছে, পুরাতন কাজগুলোকে নতুন দেখিয়ে বিল উত্তোলন করা হয়েছে। প্রধান শিক্ষক ও সভাপতি, লালমনিরহাট সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস, লালমনিরহাট জেলা শিক্ষা অফিসের কর্মকর্তারা হরিলুটের দোকান খুলে বসেছে। এছাড়া লালমনিরহাট জেলার ৪টি (আদিতমারী, কালীগঞ্জ, হাতীবান্ধা, পাটগ্রাম) উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের উদাসীনতা ও দ্বায়িত্বের অবহেলার ফলে এ ক্ষুদ্র মেরামত কার্যক্রম এখন মুখ থুবরে পড়েছে।

আরও জানা যায়, চলতি বছরের জুনের আগে উক্ত ক্ষুদ্র মেরামত শেষ করার কথা থাকলেও এখন পর্যন্ত তা শেষ হয়নি। কিন্তু লালমনিরহাট সদর উপজেলা প্রকৌশল অফিস ও লালমনিরহাট সদর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস ৫হাজার করে মোট ১০হাজার টাকা উৎকোচ গ্রহণ করেছেন মর্মে জানা গেছে।

ফলে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ক্ষুদ্র মেরামত কার্যক্রমের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন হচ্ছেনা। সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন লালমনিরহাটবাসী।

বাংলার কথা/অক্টোবর ১২, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Follow by Email
%d bloggers like this: