লালমনিরহাটে ৫০টাকা চাঁদার জন্য হত্যা

মাসুদ রানা রাশেদ, লালমনিরহাট o

লালমনিরহাট জেলার পাটগ্রামে ৫০টাকা চাঁদা না দেয়ার কারণে হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।

গত বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) দুপুরের পরে স্থানীয় ধরলা নদীতে পাথর উত্তোলনের জন্য যায় মজনু মিয়া (২৯)। সেখানে স্থানীয় ভূমি মালিক সাহাদাত উদ্দিন (সাতদিন) ৫০টাকা চাঁদা দাবি করেন। টাকা দিতে না পারলে বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে সাহাদাত উদ্দিন (সাতদিন) রড দিয়ে মজনুর শরীরে আঘাত করে।

স্থানীয়রা মজনুকে উদ্ধার করে পাটগ্রাম হাসপাতালে নিয়ে যায়। কর্তব্যরত চিকিৎসক রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করলে মধ্যপথে মজনুর মুত্যু হয়।

পাটগ্রাম থানার ওসি সুমন কুমার মোহন্ত মজনুর মৃত্যুর ঘটনা নিশ্চিত করে বলেন,‘ ৫০টাকা চাঁদার বিষয়টি সত্য নয়। সেখানে একটি চরের মালিকানা দাবি করে সাতদিন। সাতদিনের ঐ চরের কাছে পাথর তুলতে গেলে মজনুকে সে বাঁধা দেয়। এক পর্যায়ে আঘাত করে। আঘাতের কারণে মজনুকে রংপুরে নিয়ে যাওয়ার পথে মজনুর মৃত্যু হয়। সাতদিন এবং তার স্ত্রীকে স্থানীয়রা আটকে রাখে। পরে পুলিশ গিয়ে তাদের উদ্ধার করে আনে।মামলা হলে, এজাহার মূলে তাদের আদালতে প্রেরণ করা হবে।’

জানা যায়, মজনু দীর্ঘদিন থেকে পাটগ্রামের ধরলা নদী থেকে পাথর উত্তোলন করতো। চালুনির মাধ্যমে পাথর উত্তোলন তার জীবিকা নির্বাহের পথ ছিল।

বাংলার কথা/ অক্টোবর ০২, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Follow by Email
%d bloggers like this: