আজ- সোমবার, ১৯শে এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৬ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৭ই রমজান, ১৪৪২ হিজরি
বাংলার কথা
Header Banner

আদিতমারীতে আনসার সদস্যের মৃত্যুকে ঘিরে চাঞ্চল্য

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp

হাতীবান্ধা (লালমনিরহাট) প্রতিবেদক o

লালমনিরহাটে এক আনসার সদস্যের বিষপানে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে।

 

জানা গেছে সোমবার (৫ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০ টায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।জেলার আদিতমারী উপজেলার সাপ্টিবাড়ী ইউনিয়নের গিলাবাড়ী গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হকের ছেলে ঈমান আলী (২১) বিষপানে আত্মহত্যা করেন। এতে ঐ এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

 

পরিবারের পক্ষ থেকে যানানো হয়েছে, ঈমান আলী আনসার ভিডিপিতে বান্দরবনে কর্মরত ছিলেন। গত ১০-১২ দিন আগে ছুটিতে বাড়ি আসেন। গত ৫/৬ মাস আগে মিথ্যা অভিযোগে শালিস বৈঠকের মাধ্যমে সাপ্টিবাড়ি বাজার সংলগ্ন ব্যবসায়ী শামসুল হকের অনার্স পড়ুয়া মেয়ে মোছা. হালিমা বেগমের (১৯) সাথে বিয়ে হয়। মোবাইল ফোনে পরিচয়ের মাধ্যমে তাদের মধ্যে কথা ও এসএমএস আদান প্রদান হয়। কিন্তু এর মধ্যেই মেয়ে বিয়ের দাবিতে ইমান আলীর বাড়িতে অবস্থান নেয়। পরে সেখানে শালিস বৈঠক বসে। শালিস বৈঠকে মেয়ে এবং মেয়ের পরিবার ঈমান আলীর বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দেয় যে, হালিমার সাথে শারীরিক সম্পর্কে মিলিত হয়েছে। এই অভিযোগের ভিত্তিতে শালিস বৈঠকের মাধ্যমে পারিবারিকভাবে তাদের বিয়ে দেয়া হয়। সব কিছু মেনে নিয়ে ইমান আলী হালিমাকে নিয়ে সংসার জীবন শুরু করে। এর মধ্যে ইমান আলী কয়েকদিন আগে ছুটিতে বাড়িতে আসে।

 

 

গত রবিবার (৪ এপ্রিল) সকালে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ইমান আলী বিষপান করে। পরে হালিমার চিৎকারে বাড়ির সবাই তাকে উদ্ধার করে প্রথমে আদিতমারী থানা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে সেখান থেকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার সকালে তার মৃত্যু হয়। বিষপানে মৃত্যুর পরেও কোন ময়নাতদন্ত ছাড়াই সোমবার সন্ধ্যার পরে বাড়িতে নিয়ে আসে ইমান আলীর মরদেহ।

 

আদিতমারী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাইফুল ইসলাম জানান, যেহেতু রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যু হয়েছে তাই তারাই বলতে পারবে কেন মরদেহের ময়না তদন্ত করা হয়নি। তবে এ ব্যাপারে সোমবার রাত ৮টা পর্যন্ত মৃতের পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি।

 

 

বাংলার কথা/সিদরাতুল মোত্তাকিন/এপ্রিল ০৭, ২০২১

এই রকম আরও খবর

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn