রুয়েটে জাতীয় শোক দিবস পালিত


নিজস্ব প্রতিবেদক ০
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (রুয়েট) স্বাস্থ্যবিধি মেনে দিনব্যাপী নানা কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে পালিত হয়।

আজ শনিবার (১৫ আগস্ট) সূর্যোদয়ের সাথে সাথে রুয়েটের প্রশাসনিক ভবন ও হলসমূহে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা ও শোকের প্রতীক পতাকা উত্তোলন করা হয়। এরপর সকাল ১০টায় শোকের প্রতীক কালোব্যাজ ধারণ করা হয়।

সকাল সাড়ে ১০টায় কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির বঙ্গবন্ধু কর্ণার সংলগ্ন স্থানে নবনির্মিত বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালের উদ্বোধন করেন ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ রফিকুল ইসলাম সেখ । সকাল পৌনে ১১টায় ভাইস-চ্যান্সেলরের নেতৃত্বে জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের নবনির্মিত ম্যুরালে পুষ্পার্ঘ অর্পণ ও শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করা হয়।

এছাড়াও পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন রুয়েট শিক্ষক সমিতি, রুয়েট শাখা ছাত্রলীগ, রুয়েট অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশন, কর্মচারি সমিতি সহ বিভিন্ন আবাসিক হলসমূহ।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী প্রকৌশল প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম হোসেন, রুয়েটের শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. মোঃ ফারক হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর ড. মিয়া মোঃ জগলুল সাদত, পরিচালক ছাত্রকল্যাণ ও ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবস উদযাপন কমিটির সভাপতি প্রফেসর ড. মোঃ রবিউল আওয়াল, উপপরিচালক ছাত্রকল্যাণ মোঃ মামুনুর রশীদ ও আবু সাঈদ, রুয়েট অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি দিলীপ কুমার ঘোষ ও সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মুফতি মাহমুদ রনি, রুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী মাহফুজুর রহমান তপু , কর্মচারী সমিতির সভাপতি মোঃ মহিদুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুল্øাহ আল মামুন শুভ সহ বিভিন্ন অনুষদের ডীনবৃন্দ, বিভাগীয় প্রধানবৃন্দ, হলসমূহের প্রভোস্টবৃন্দ, শিক্ষকবৃন্দ, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন শেষে দিবসটি উপলক্ষে সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ রফিকুল ইসলাম সেখ বৃক্ষরোপণ করেন। বাদ যোহর রুয়েট কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে বঙ্গবন্ধুসহ ১৫ আগস্টে নিহত সকল শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

উল্লেখ্য, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরালটি রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে নির্মিত প্রথম ম্যুরাল যা রুয়েটের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ রফিকুল ইসলাম সেখের সার্বিক তত্ত্বাবধানে নির্মিত হয়েছে। বৃক্ষরোপণ কমসূচি শেষে রুয়েট ভাইস-চ্যান্সেলর বঙ্গবন্ধু কর্ণার পরিদর্শন করেন।

বাংলার কথা/পিআর/আগস্ট ১৫, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Follow by Email
%d bloggers like this: