রাবিতে দু’দিন ব্যাপী বসন্ত বরণ উৎসব শুরু


মঈন উদ্দিন, রাবি ০
পহেলা ফাল্গুন উপলক্ষে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) চারুকলা অনুষদে দু’দিন ব্যাপী বসন্ত বরণ ও পিঠা উৎসব শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে চারুকলা অনুষদ চত্বরের মুক্তমঞ্চে উদ্বোধন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন রাজশাহী-১ আসনের সংসদ সদস্য ওমর ফারুক চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. চৌধুরী মো. জাকারিয়া এবং চিত্রকলা, প্রাচ্যকলা ও ছাপচিত্র বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক সুশান্ত কুমার অধিকারী। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চারুকলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক সিদ্ধার্থ শঙ্কর তালুকদার।

অনুষ্ঠানে রাজশাহী-১ আসনের সংসদ সদস্য ওমর ফারুক চৌধুরী বলেন, বসন্ত বরণ উৎসবে এসে আমাদের মাটি ও সংস্কৃতির গন্ধ পেয়েছি। পেয়েছি বাঙালি সংস্কৃতির কৃষ্টি, কালচার। দেখেছি নিজের মায়ের অনন্য একটি রুপ। চারুকলার শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের যে চিন্তা-চেতনা, শিকড়ে ফিরে যাওয়ার যে চেষ্টা, তা নতুন প্রজন্মকে পুরোনো দিনের কথা স্মরণ করিয়ে দিচ্ছে। আপনারা আছেন বলেই আমরা এখনো বাঙালিত্ব ধরে রাখতে পেরেছি।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী মো. জাকারিয়া বলেন, শিক্ষা ও সংস্কৃতি একটি অপরটির পরিপূরক। বিজ্ঞান যেমন মস্তিস্কের উন্নয়ন ঘটায়, ঠিক তেমনই হৃদয়ের উন্নয়ন ঘটায় শিল্পচর্চা। একটি দেশের উন্নয়ন ঘটাতে চাইলে শিক্ষার পাশাপাশি সংস্কৃতি চর্চায় জোর দিতে হবে। আর এ উন্নয়নকে ধরে রাখতে চাইলে আমাদের শুধু ধনী হলে হবে না, শিক্ষা ও সাংস্কৃতিতেও উন্নয়ন ঘটাতে হবে।

উদ্বোধন শেষে চারুকলা অনুষদের উদ্যোগে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি অনুষদ ভবনের সামনে থেকে শুরু হয়ে ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে পুনরায় একই স্থানে শেষ হয়।

আয়োজক সূত্রে জানা গেছে, দু’দিন ব্যাপী উৎসবের মধ্যে রয়েছে পিঠা উৎসব, যাত্রাপালা, শিল্পকর্ম প্রদর্শনী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

চিত্রকলা, প্রাচ্যকলা ও ছাপচিত্র বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী রাহুল দেব বলেন, আমরা এবারই প্রথম দু’দিন ব্যাপী বসন্ত উৎসবের আয়োজন করেছি। এবারের শোভাযাত্রায় কোকিল ও পলাশ ফুলের ডামি রাখা হয়েছে। এছাড়া পিঠা উৎসব, শিল্পকর্ম প্রদর্শনী, দেয়ালচিত্র অঙ্কন করা হয়েছে। সন্ধ্যায় ঢাকার সহজিয়া ব্যান্ড সংগীত পরিবেশন করবে। এছাড়াও শুক্রবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) অনুষদের শিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান চলবে।

বাংলার কথা/ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Follow by Email