বৃহস্পতিবার , ১৩ অক্টোবর ২০২২ | ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. খুলনা বিভাগ
  4. খেলাধুলা
  5. চট্টগ্রাম বিভাগ
  6. জাতীয়
  7. ঢাকা বিভাগ
  8. প্রচ্ছদ
  9. ফিচার
  10. বরিশাল বিভাগ
  11. বিনোদন
  12. মতামত
  13. ময়মনসিংহ বিভাগ
  14. রংপুর বিভাগ
  15. রাজনীতি

রাজশাহীতে শীর্ষ সন্ত্রাসী অনিক গ্রেফতার

প্রতিবেদক
BanglarKotha-বাংলারকথা
অক্টোবর ১৩, ২০২২ ৯:০৪ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিদেক , রাজশাহী :

বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশের অভিযানে রাজশাহী নগরীর শিরোইল বাসস্ট্যান্ড এলাকার কুখ্যাত সন্ত্রাসি ও চাঁদাবাজ অনিক ইসলামাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার রাতে বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশ গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে বাস টার্মিনাল এলাকার কুখ্যাত সন্ত্রাসি ও চাঁদাবাজ অনিক ইসলামকে (২৯) গ্রেফতার করে। তিনি ওই এলাকার মৃত সাইফুল ইসলামের ছেলে। তার বিরুদ্ধে চুরি, ছিনতাই ও চাঁদাবাজীর অভিযোগে একাধিক মামলা আছে।

অনুসন্ধানে জানা যায়, এই অরিক রাজশাহী রেলস্টেশন, বাস টার্মিনাল ও রেল ভবন চত্বরের সন্ত্রাসী মাদক ব্যবসায়ী নামে পরিচিত। তিনি স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিজামুল আযিম ও বাস শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক এবং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহাতাবের ঘোনিষ্ট। তাদের ছত্রছায়ায় অনিক নানা রকমের অপকর্মে জড়িত। অনিকের বস্তিতে বেড়ে ওঠা।
কিন্তু রেল কোয়াটার দীর্ঘদিন যাবত তার দখলে। স্টেশনের টিকিট কালোবাজারির নিয়ন্ত্রণ করেন তিনি। রেলওয়ে কন্ট্রোলার অফ স্টোরস সিওএস, চিফ ইঞ্জিনিয়ার দপ্তরের টেন্ডার অন্য ঠিকাদারকে পাইয়ে দিয়ে লাখ লাখ টাকা আয় করে।
আবার অনেককে টেন্ডার পাইয়ে দেয়ার নাম করে টাকা নিয়ে কোটি টাকার মতো আত্মসাৎ করেছেন। দৈনিক সোনার দেশ পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক প্রয়াত আবুল হোসেন মালেকের পুত্র রাসেলসহ অনেকের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন।

সূত্র মতে, সন্ত্রাসী অনিক শিরোইল কাঁচাবাজারের নিকট অবস্থিত রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের পুবালি মার্কেটের একাধিক দোকান জোরপূর্বক দখলে নিয়ে মাদকের আখড়া বসিয়েছে। টার্মিনাল এলাকার বিলবোর্ড, বৈদ্যুতিক তার সহ বিভিন্ন সরকারি সরঞ্জাম রাতের আধারে চুরি করে। এধরনের একটি মামলায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

টার্মিনাল এলাকার হোটেলে দল ধরে খেয়ে বিল না দেয়া, বিভিন্ন দোকানে চাঁদাবাজি ও ফুটপাত ব্যবসায়ীদের জিনিসপত্র জোর করে কেড়ে নেয়ার অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। রেলওয়ের নিয়োগ বাণিজ্যে জড়িত রয়েেেছ। তার ভয়ে কেউ থানায় মামলা করতে যাওয়ার সাহস পায় না।

সর্বশেষ - প্রচ্ছদ