যানজট নিরসনে মানুষের দুর্ভোগ লাঘবে কাজ করলো পুলিশ

পুঠিয়া (রাজশাহী) প্রতিনিধি o

পুঠিয়ায় মহাসড়কের বেহাল দশায় সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ দেখে নিজ উদ্যোগে কাজ করলো পুলিশ।

রাজশাহী পুঠিয়া উপজেলার বিড়ালদহ মাজার সংলগ্ন স্থানের সামনে মহাসড়কে কারর্পেটিং ও ইটের সলিং উঠে গিয়ে পানি জমে বড়-বড় গর্তের সৃষ্টি হয়ে বর্তমানে যানবাহন চলাচলে অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে। ফলে এসব স্থানে প্রায়ই দূর্ঘটনা ঘটছে। বাড়ছে হতাহতের সংখ্যাও।

এসব স্থানে বৃষ্টির পানি জমে যানবাহন চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। ফলে রাজশাহী থেকে ঢাকার সাথে যোগাযোগকারী গুরুত্বপূর্ণ এ সড়কটিতে যানচলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টির পাশাপশি পথচারীদের চরম দুভোর্গ পোহাতে হচ্ছে। পুঠিয়া উপজেলার বিড়ালদহ মাজারের সামনে গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় ছোট ও মাঝারি যানবাহন আটকে গিয়ে প্রায়ই দূর্ঘটনায় পতিত হয়ে হতাহতের বেড়েই চললেও কতৃপক্ষ উদাসীন। যেন দেখার কেউ নেই।

এমন অবস্থায় গত সোমবার (৫অক্টোবর) বিকাল ৫ টায় তিন টি ১০ চাকার মালবাহী ট্রাক বিকল হয়ে যায় এসময় প্রাই ৫শতাধিক গাড়ী আটকা পরে এর ফলে বিড়ালদহ মাজার থেকে বানেশ্বর বাজার পর্যন্ত শুরু হয় দীর্ঘ যানজট।

এ অবস্থায় সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ দেখে পুঠিয়া থানা পুলিশ ও পবা হাইওয়ে পুলিশের সদস্যরা তাদের নিজ উদ্যোগ কাজ শুরু করে বিকাল ৫ টা থেকে রাত্রি ৪ টা পর্যন্ত অক্লান্ত পরিশ্রম করেসাধারণ মানুষের দুর্ভোগ দেখে নিজ উদ্যোগে কাজ করলো পুলিশকরেছেন।

এ বিষয়ে পুঠিয়া থানার ওসি রেজাউল ইসলাম বলেন, ৫অক্টোবর বিকাল ৫টায় পুঠিয়া উপজেলার বিড়ালদহ মাজারের সামনে মহাসড়কে গর্তে পরে তিন টি ১০ চাকার মালবাহী ট্রাক বিকল হয়ে যায় এর ফলে সৃষ্টি হয় দীর্ঘ যানজট এঅবস্থায় পুঠিয়া থানা পুলিশ ও পবা হাইওয়ে পুলিশের যৌথ উদ্যোগে রাস্তা টি আংশিক সংস্কার ও বিকল্প রাস্তা তৈরি করায় দীর্ঘ ১২ ঘণ্টার অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে যানজট নিরসনে আসে।

এ ব্যাপারে পবা হাইওয়ে পুলিশের ওসি লুৎফর রহমানও জানান, ৫অক্টোবর বিকাল ৫টায় পুঠিয়া উপজেলার বিড়ালদহ মাজারের সামনে মহাসড়কে গর্তে পরে তিন টি ১০ চাকার মালবাহী ট্রাক বিকল হয়ে যায় যার ফলে শুরু হয় দীর্ঘ যানজট এই এ অবস্থায় পুঠিয়া থানা পুলিশ ও পবা হাইওয়ে পুলিশের যৌথ উদ্যোগে রাস্তা টি আংশিক সংস্কার ও বিকল্প রাস্তা তৈরি করায় দীর্ঘ ১২ ঘণ্টার অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে যানজট নিরসনে আসে।

সড়কে প্রতিদিন শতশত বাস, ট্রাক, প্রাইভেটকারসহ বিভিন্ন যানবাহন বিপদজনকভাবে চলাচল করছে। এতে প্রায়ই ঘটছে দূর্ঘটনা। তাই পথচারীসহ সংশ্লিষ্টরা এ গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি দ্রুত সংষ্কারে কতৃপক্ষের সহযোগিতা চেয়েছেন।

বাংলার কথা/আমজাদ হোসেন/ অক্টোবর ০৬, ২০২০

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Follow by Email
%d bloggers like this: