মোহনপুরে আগুনে নগদ টাকাসহ আসবাবপত্র পুড়ে ছাই

এম এম মামুন, মোহনপুর (রাজশাহী) o

রাজশাহীর মোহনপুরে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিটের আগুনে এক সার ও কীটনাশক ব্যবসায়ীর ঘরে রক্ষিত নগদ সাড়ে চার লাখ টাকাসহ পাঁচটি ঘরের সকল আসবাবপত্র পুড়ে ছাই হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে আজ বুধবার (১২ আগস্ট) সকাল সাড়ে আটটার সময় উপজেলার মৌগাছি ইউনিয়নের হরিফলা গ্রামে। বিকেল পৌনে পাঁচটার দিকে রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনের সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ব্যাংক নেয়া ঋণের টাকা পুড়ে যাওয়ায় দিশেহারা হয়ে পড়েছেন হরিফলা গ্রামের ইয়াছিন আলী মন্ডলের ছেলে শহিদুল ইসলাম। নওহাটা ও মোহনপুর ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘন্টাব্যাপি অভিযান চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ করেন।

জানা গেছে,  সকালে বাড়ির মালিক শহিদুল ইসলাম প্রতিদিনের মতো বাড়ির পাশের মোড়ে তার সার ও কীটনাশক দোকানে যান। একটু পরেই বাড়ির অন্য সদস্যরা তার ঘরটিতে আগুন লেগেছে বলে খবর দেয়। মুহূর্তের মধ্যেই পাঁচটি ঘরে আগুন লেগে যায়। আগুনে কর্মসংস্থান ব্যাংক মোহনপুর শাখার ঋণ পরিশোধের (রিকভারি) সাড়ে চার লাখ টাকাসহ পাঁচটি ঘরের যাবতীয় আসবাবপত্র পুড়ে যায়।

ব্যবসায়ী  শহিদুল ইসলাম জানান, নগদ সাড়ে চার লাখ টাকাসহ প্রায় আট লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। কিন্তু তার আগেই শহিদুল ইসলামের স্বপ্নসহ ঋণ রিকোভারীর টাকা পুড়ে যায়।

শহিদুল ইসলাম বলেন, করোনা সংকটের কারণে ব্যাংকের লোকজন না থাকায় টাকাগুলো ঘরেই ড্রেসিং টেবিলের ড্রয়ারে তালাবদ্ধ ছিল। বিদ্যুতের শর্টসার্কিটের কারণে টাকাসহ বাড়ির জিনিসপত্র পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

নওহাটা ফায়ার সার্ভিসেস স্টেশনের ইনচার্জ রেজাউল করিম বলেন, ‘বিদ্যুতের শর্টসার্কিটের কারণেই ওই বাড়ি আগুনে পুড়ে গেছে। আমাদের পৌছার আগেই টাকাসহ অনেক আসবাবপত্র পুড়ে গেছে। এতে প্রায় নগদ টাকাসহ সাড়ে সাত লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

বাংলার কথা/আগষ্ট ১২, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Follow by Email
%d bloggers like this: