মোদির ওয়েবসাইট থেকে লাখ লাখ তথ্য ফাঁস!

বাংলার কথা ডেস্ক ০

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ব্যক্তিগত ওয়েবসাইট narendramodi.in থেকে পাঁচ লাখেরও বেশি মানুষের তথ্য চুরি হয়েছে। ‘সাইবেল’ নামে এক মার্কিন সাইবার সুরক্ষা সংস্থার পক্ষ থেকে এমনটাই জানানো হয়েছে।

চুরি হওয়া তথ্যের মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন সময়ে প্রধানমন্ত্রীর নানা তহবিলে অনুদান দেওয়া দু’লাখের বেশি মানুষের ফোন নম্বর, ইমেল আইডির মতো নানা ব্যক্তিগত তথ্য। যার মধ্যে করোনা ত্রাণে অনুদান জমা দেওয়া ব্যক্তিদের তথ্যও। এই সব তথ্য ডার্ক ওয়েবে বিক্রি করে দেওয়া হয়েছে বলে ওই সংস্থার দাবি।

শুক্রবার এক ব্লগ পোস্টে ওই সংস্থার পক্ষে দাবি করা হয়, চুরি যাওয়া ৫ লাখ ৭০ হাজারেরও বেশি ব্যক্তিগত তথ্য কোনও অপরাধমূলক উদ্দেশ্যে ব্যবহৃত হওয়ার সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে, নাম, ফোন নম্বর, ইমেল আইডি প্রভৃতি।

গত ৩ সেপ্টেম্বর হ্যাক করা হয়েছিল প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত টুইটার অ্যাকাউন্টটিও। এরপর ১০ অক্টোবর সাইবেল গোপনে জানতে পারে, প্রধানমন্ত্রীর ওয়েবসাইটের তথ্য ডার্ক ওয়েবে চলে গিয়েছে। খবর পেয়ে ফাঁস হওয়া তথ্য ও তার বিশ্লেষণ করতে শুরু করে।

ওই মার্কিন সংস্থা আরও জানিয়েছে, সাইবার অপরাধীরা সম্প্রতি ওই ওয়েবসাইটের তথ্য চুরি করে। তার সাহায্যেই তারা ওই ওয়েবসাইটের টুইটার অ্যাকাউন্টটি হ্যাক করেছিল। তবে এখনও তথ্য ফাঁসের ব্যাপারে কোনো বিবৃতি দেওয়া হয়নি।

মার্কিন সংস্থার দাবি, দেশের সাইবার অপরাধ সংক্রান্ত ঘটনাবলী পর্যবেক্ষণে রাখার বিষয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত সরকারি সংস্থা CERT-India-কে এবিষয়ে জানানো হলে তারা তাৎক্ষণিক কোনও সাড়া দেয়নি।

প্রসঙ্গত, ডার্ক ওয়েব হল ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েবের এমন একটি উপাদান যা এক ধরনের গোপন নেটওয়ার্ক। ডার্ক ওয়েব মূলত ডিপ ওয়েবের একটি অংশ। সাধারণ সার্চ ইঞ্জিন এখানে প্রবেশ করতে পারে না।

সূত্র:পিএনএস২৪।

বাংলার কথা/অক্টোবর ১৭ ,২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Follow by Email
%d bloggers like this: