রবিবার , ২৫ ডিসেম্বর ২০২২ | ২১শে মাঘ, ১৪২৯
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. খুলনা বিভাগ
  4. খেলাধুলা
  5. চট্টগ্রাম বিভাগ
  6. জাতীয়
  7. ঢাকা বিভাগ
  8. প্রচ্ছদ
  9. ফিচার
  10. বরিশাল বিভাগ
  11. বিনোদন
  12. মতামত
  13. ময়মনসিংহ বিভাগ
  14. রংপুর বিভাগ
  15. রাজনীতি

বাঘা পৌরসভার নির্বাচন: নৌকার বিপক্ষে যেই ভোট চাইবে, তাকেই পেটানো হবে

প্রতিবেদক
BanglarKotha-বাংলারকথা
ডিসেম্বর ২৫, ২০২২ ১১:৫৮ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিনিধি :

আগামী ২৯ ডিসেম্বর রাজশাহীর বাঘা পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে প্রচার প্রচারণাকে কেন্দ্র করে ইতোমধ্যে শুরু হয়ে গেছে অধিপত্য বিস্তারের মহড়া। ভোট প্রচারণার মাঠে একে অপরকে দেখে নেওয়াার হুমকি অব্যহত আছে।

আজকির পর থাকি যেই শালা নৌকার বিপক্ষে ভোট চাবি, তাকেই পেটানো হবে। কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। আজকির পর থেকে আক্কাছের পক্ষে যেই শালা ভোট চাইতে আসপি, তাকিই গাওপাড়াতে দেখে নেওয়া হবে।’ বাঘা পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ও স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী আক্কাছ আলীর কর্মী-সমর্থকদের এভাবেই হুমকি-ধমকি দিয়ে যাচ্ছেন আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী শাহিনুর রহমান পিন্টুর ভাই তুহিন ও আলমসহ তাঁদের লোকজন। এই ধরনের একটি অডিও সামাজিক গণমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

এছাড়াও ভোটের দিন নৌকার বিপক্ষের প্রার্থীর এজেন্টদের কেন্দ্রে থেকে বের করে দেওয়া হবে বলেও হুমকি দেওয়া হচ্ছে। এসব নিয়ে বাঘা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও রিটানির্ং কর্মকর্তার কাছে অন্তত ১০ টি অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। তবে এসব অভিযোগের দৃশ্যমান কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি এখনো।

এদিকে নির্বাচন সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করার জন্য বাঘা পৌরসভার সবকটি কেন্দ্রে সিসি ক্যামেরাযুক্ত করার আহŸান জানিয়েছেন স্বতন্ত্র মেয়রপ্রার্থী আক্কাছ আলী।
সামাজিক গণমাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ওই অডিওতে বাঘার গাওপাড়া গ্রামের একজন ব্যক্তিকে উদ্দেশ্য করে বাঘা পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী শাহিনুর রহমান পিন্টুর ভাই তুহিন বলতে থাকেন, ‘এই শোনেন, শোনেন। আমরা নৌকার লোক। নৌকার পক্ষে ভোট করবেন, না করবেন না? আজকির পর থাকি যেই শালা নৌকার বিপক্ষে ভোট চাবি, তাকেই পেটানো হবে। কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। আজকির পর থেকে আক্কাছের পক্ষে যেই শালা ভোট চাইতে আসপি, তাকিই গাওপাড়াতে দেখে নেওয়া হবে।’

এদিকে হুমকি পাওয়া ব্যক্তি আমিরুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, ‘শুধু আমাকে নয়, গ্রামে গ্রামে গিয়ে নানাভাবে হুমকি দিয়ে যাচ্ছে নৌকা প্রার্থীর শাহিনুর রহমান পিন্টুর দুই ভাইসহ তাদের লোকজন। তারা স্বতন্ত্র প্রার্থী ও সাবেক মেয়র আক্কাছ আলীর এজেন্টদের ভোটকেন্দ্রে যেন না যায়, তার জন্যেও আগাম হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। আক্কাছের কর্মী-সমর্থকদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে হুমকি-ধামকি দিয়ে যাচ্ছে। পুরো বাঘা পৌর এলাকায় ভীতিকর পরিবেশ তৈরীর চেষ্টা চালাচ্ছে।’

মেয়র প্রার্থী আক্কাছ আলী বলেন, ‘আমার লোকজনকে নানাভাবে হুমকি দিচ্ছে নৌকা প্রার্থীর লোকজন। এসব নিয়ে আমি অন্তত ১০টি অভিযোগ দিয়েছি। নির্বাচন সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করতে প্রতিটি কেন্দ্রে সিসি ক্যামেরা সংযুক্ত করার আবেদন দিয়েছি। কিন্তু কোনো ব্যবস্থা নেয়নি নির্বাচন অফিস।

জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী শাহিনুর রহমান পিন্টু বলেন, এই ধরনের অভিযোগ সঠিক নয়। কাউকে হুমকি দেওয়ার প্রশ্নই আসে না। সাধারণ মানুষ এমনিতেই আমার পাশে আছে।’

প্রসঙ্গত, আগামী ২৯ ডিসেম্বর বাঘা পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনে মোট ৫জন মেয়র প্রার্থী অংশ নিচ্ছেন। এর মধ্যে আওয়ামী লীগ মনোনীত একজন। বাকি চারজন স্বতন্ত্র প্রার্থীর মধ্যে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী একজন, বিএনপির একজন, জামায়াতের একজন ও স্বতন্ত্র অপরজন।
বাঘা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শারমিন আক্তার বলেন, ‘কিছু অভিযোগ এসেছে। সেগুলো খোঁজ-খবর নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।’

সর্বশেষ - প্রচ্ছদ