বাঘায় ধর্ষণ মামলার আসামী গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক (বাঘা) o

রাজশাহীর বাঘায় বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে গৃহবধুকে ধর্ষণ মামলার আসামী বাদশা আলমকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (৮ অক্টোবর) রাতে বাগাতিপাড়া উপজেলার জামনগল ইউনিয়নের ঘোষপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

অভিযোগে জানা গেছে, উপজেলার মনিগ্রাম এলাকায় এক গৃহবধূর স্বামী দ্বিতীয় বিয়ে করে ওই স্ত্রীর সাথে অন্যত্র বসবাস করার কারণে তার প্রথম স্ত্রীকে ঠিকভাবে দেখভাল করতেন না। আর এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ওই গৃহবধূর সাথে পরকিয়া প্রেমে লিপ্ত হন পাশ্ববর্তী তুলশিপুর গ্রামের ইদ্রিশ আলীর ছেলে মুদি দোকানদার বাদশা আলম। অত:পর ঐ নারীকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার সাথে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তুলেন। এ ভাবে সম্পর্ক চলার এক পর্যায় ওই নারী অন্ত:সত্বা হয়ে পড়েন।

এদিকে অন্ত:সত্বা হওয়ার পর থেকে প্রেমিক বাদশা আলমকে বিয়ের জন্য চাপ দিতে থাকে গৃহবধূ। কিন্তু বাদশা আলম এ বিয়েতে রাজী না হওয়ায় নিরুপায় হয়ে ঘটনার পাঁচমাস পর গত মাসের ২৯ তারিখে বাঘা থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন গৃহবধূ।

মামলা দায়েরের ১০ দিন পর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বাঘা থানার উপ-পরিদর্শক (এস.আই) লুৎফর রহমান ও সহকারি উপ-পরিদর্শক(এ.এস.আই)রেজাউল করিম গত বৃহস্পতিবার রাতে বাগাতিপাড়া উপজেলার জামনগল ইউনিয়নের ঘোষপাড়া এলাকা থেকে আসামী বাদশা আলমকে গ্রেপ্তার করেন।

বাঘা থানার ওসি নজরুল ইসলাম জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে ধর্ষণ মামলার আসামী বাদশা আলমকে গ্রেপ্তার করার হয়েছে। শুক্রবার (৯ অক্টোবর) দুপুরে তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

বাংলার কথা/নুরুজ্জামান/ অক্টোবর ০৯, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Follow by Email
%d bloggers like this: