প্রসাধনী ছাড়াই ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়বেন যেভাবে

বাংলার কথা ডেস্ক ০

ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে অনেকেই নানা রকম প্রসাধনী ব্যবহার করেন। যা ত্বকের জন্য মোটেও ভালো নয়। এসব প্রসাধনী ব্যবহারে ত্বকে ক্ষতির পরিমাণ আরো বেড়ে যায়। এক্ষেত্রে ঘরোয়া উপাদান খুবই কার্যকরী। তাছাড়া এতে ত্বকেরও কোনো ক্ষতি হওয়ারও ভয় নেই।

করোনাকালে কমবেশি সবাই একপ্রকার ঘরবন্দি। তাই এখনই হচ্ছে রূপচর্চা করার উত্তম সময়। এই সময় আপনি ঘরোয়া জিনিস দিয়েই বাড়াতে পারেন ত্বকের উজ্জ্বলতা। যা কেবল আপনার ত্বককেই শিথিল করবে না, পাশাপাশি এটি পুরোপুরি ময়েশ্চারাইজ করবে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক সেই জাদুকরী উপায়টি-

এর জন্য আপনি ব্যবহার করতে পারেন ঘরে বানানো রুটির ফেসপ্যাক। বাসি রুটি গুঁড়া করে নিন। তাতে মিশিয়ে নিন গোলাপজল ও মালাই। এই তিন উপদানের সঙ্গে মিশিয়ে নিন হলুদ গুঁড়া। মিশ্রণটি ভালোভাবে মিশিয়ে স্কিনে ভালো করে লাগিয়ে নিন। এরপর টানা ১০ মিনিট ম্যাসাজ করুন। এবার ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এরপর ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। এভাবে সপ্তাহে দুদিন ফেসপ্যাকটি ব্যবহার করতে পারেন। এতে আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়বে ও ত্বক হবে মসৃণ।

হলুদে আছে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল, যা আপনার ত্বক ময়লা মুক্ত করতে সহায়তা করে। গোলাপজল ত্বককে মসৃণ করে। আর বাসি রুটির গুঁড়া প্রাকৃতিক এক্সফোলিয়েন্ট হিসেবে কাজ করে। অর্থাৎ যা দিয়ে আপনি ত্বকের মৃত কোষ তুলে ফেলতে পারবেন।

ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে অনেকেই নানা রকম প্রসাধনী ব্যবহার করেন। যা ত্বকের জন্য মোটেও ভালো নয়। এসব প্রসাধনী ব্যবহারে ত্বকে ক্ষতির পরিমাণ আরো বেড়ে যায়। এক্ষেত্রে ঘরোয়া উপাদান খুবই কার্যকরী। তাছাড়া এতে ত্বকেরও কোনো ক্ষতি হওয়ারও ভয় নেই।

করোনাকালে কমবেশি সবাই একপ্রকার ঘরবন্দি। তাই এখনই হচ্ছে রূপচর্চা করার উত্তম সময়। এই সময় আপনি ঘরোয়া জিনিস দিয়েই বাড়াতে পারেন ত্বকের উজ্জ্বলতা। যা কেবল আপনার ত্বককেই শিথিল করবে না, পাশাপাশি এটি পুরোপুরি ময়েশ্চারাইজ করবে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক সেই জাদুকরী উপায়টি-

এর জন্য আপনি ব্যবহার করতে পারেন ঘরে বানানো রুটির ফেসপ্যাক। বাসি রুটি গুঁড়া করে নিন। তাতে মিশিয়ে নিন গোলাপজল ও মালাই। এই তিন উপদানের সঙ্গে মিশিয়ে নিন হলুদ গুঁড়া। মিশ্রণটি ভালোভাবে মিশিয়ে স্কিনে ভালো করে লাগিয়ে নিন। এরপর টানা ১০ মিনিট ম্যাসাজ করুন। এবার ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এরপর ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। এভাবে সপ্তাহে দুদিন ফেসপ্যাকটি ব্যবহার করতে পারেন। এতে আপনার ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়বে ও ত্বক হবে মসৃণ।

হলুদে আছে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল, যা আপনার ত্বক ময়লা মুক্ত করতে সহায়তা করে। গোলাপজল ত্বককে মসৃণ করে। আর বাসি রুটির গুঁড়া প্রাকৃতিক এক্সফোলিয়েন্ট হিসেবে কাজ করে। অর্থাৎ যা দিয়ে আপনি ত্বকের মৃত কোষ তুলে ফেলতে পারবেন।

সূত্র:পিএনএস২৪।

বাংলার কথা/ আগষ্ট ১৩, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Follow by Email
%d bloggers like this: