পাটগ্রামে মাদ্রাসার জমি দখলের চেষ্টা

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp

পাটগ্রাম (লালমনিরহাট) প্রতিনিধি :

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার কুচলিবাড়ী ইউনিয়নের পানবাড়ী রহিমুদ্দিন গাজীউল্যাহ ফোরকানিয়া মাদরাসার জমি জবর দখল চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে।

অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, একই এলাকার সহির উদ্দিনে ছেলে সহিদার রহমান ওই মাদ্রাসার জমি উত্তরাধীকারী সূত্রে মালিক দাবি করে আসছে। মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা আজিজুর রহমান ওরফে দরবেশ ২০০৬ সালে সহিদার রহমানের ছোট ভাই আব্দুল জব্বাররে নিকট ৬.২৫ শতক জমি ক্রয় পূর্বক দলিল করে নেন। জমি বুঝে নিয়ে মাদ্রাসার কেনা জমিতে আজিজুর রহমান গাছ- পালা ও বাঁশ লাগান। দীর্ঘ ৪ বছর পর সহিদার রহমান ছোট ভাইয়ের পৈতৃক প্রাপ্ত অংশের বিক্রিত জমির মালিক দাবি করে বসেন। একপর্যায়ে জমির মালিকানা নিয়ে আদালতে মামলা করেন উভয়পক্ষ। আদালত দলিল- দস্তাবেজ পর্যালোচনা করে সহিদার রহমানের করা ৩ টি মামলা খারিজ করে দিয়ে মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠানের পক্ষে রায় দেন। একই এলাকার বাসিন্দা নুর ইসলাম বলেন, সহিদার রহমান চলমান মাদ্রাসাটি বন্ধে ও জমির দখল নিতে বিভিন্ন ভাবে হয়রানি করছেন। বিভিন্ন জনের নিকট শুনেছি সহিদার রহমান মাদ্রাসার সন্নিকট টিনের চালায় নাকি আগুন ধরিয়ে দিয়েছেন।

সহিদার রহমান বলেন, উক্ত জমির উপর আমার কোনো অভিযোগ নেই। আমি টিনের চালায়ও আগুন দেইনি। বরং তারাই আমাকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করছে। মামলা দিয়ে ক্ষতি করছে।

 

এ বিষয়ে পানবাড়ী ফোরকানিয়া মাদরাসা ও দায়রা শরীফের প্রতিষ্ঠাতা আজিজুর রহমান ওরফে দরবেশ বলেন, আমাকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করছে ভয়-ভীতি দেখায় সহিদার রহমান। চলতি বছরের ০৯ মে বিকেলে মাদ্রাসা সংলগ্ন টিনের চালা আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয় সে। এ বিষয়ে পাটগ্রাম থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছি। আমি ধর্মীয় শিক্ষার জন্য মাদ্রাসাটি স্থাপন ও পরিচালনা করি। আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই।

এবিষয়ে জানতে চাইলে পাটগ্রাম থানার ওসি ওমর ফারুক বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছিল। আমি নতুন এসেছি। বিষয়টি জেনে জানাব।
বাংলার কথা/আজিনুর রহমান আজিম/২২জুন, ২০২১

এই রকম আরও খবর

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn