সোমবার , ২১ নভেম্বর ২০২২ | ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. খুলনা বিভাগ
  4. খেলাধুলা
  5. চট্টগ্রাম বিভাগ
  6. জাতীয়
  7. ঢাকা বিভাগ
  8. প্রচ্ছদ
  9. ফিচার
  10. বরিশাল বিভাগ
  11. বিনোদন
  12. মতামত
  13. ময়মনসিংহ বিভাগ
  14. রংপুর বিভাগ
  15. রাজনীতি

নেচে-গেয়ে ঘোড়ার গাড়িতে চড়িয়ে নিপুণকে বরণ

প্রতিবেদক
BanglarKotha-বাংলারকথা
নভেম্বর ২১, ২০২২ ৪:১৮ অপরাহ্ণ

নিউজ ডেস্ক :
বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে অভিনেত্রী নিপুণ আক্তারকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে জয়ী ঘোষণা করা আপিল বোর্ডের সিদ্ধান্তকে অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্টের দেওয়া রায় স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ। এর ফলে সাধারণ সম্পাদক পদে নিপুণের দায়িত্ব পালনে আর বাধা নেই।

এমন খবরে নিপুণ আক্তারকে বরণ করে নিতে এফিডিসিতে ছুটে আসেন শিল্পী সমিতির অন্যান্য সদস্যরা। ঢাক-ঢোল বাজিয়ে ও নেচে-গেয়ে ঘোড়ার গাড়িতে চড়িয়ে নিপুণকে ফুলের মালা গলায় দিয়ে বরণ করে নেন তারা।

ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হয়ে নিপুণ বলেন, ‘আজ আনন্দে চোখের পাতা ভিজে যাচ্ছে বারবার। এই রায়, এই জয় শিল্পীদের সবার। আমরা সমিতিকে আরও অনেক ভালো কাজ দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যাব।’
এর আগে সোমবার বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিল করে নিপুণ আক্তারকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে জয়ী ঘোষণা করা আপিল বোর্ডের সিদ্ধান্তকে অবৈধ ঘোষণা করে হাইকোর্টের দেওয়া রায় স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ।

হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে নিপুণের করা আপিলের অনুমতি চেয়ে আবেদন (লিভ টু আপিল) মঞ্জুর করে প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের আপিল বিভাগ এ আদেশ দেন।

আপিল বিভাগের আদেশের ফলে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নিপুণ দায়িত্ব চালিয়ে যেতে পারবেন বলে জানান তার অন্যতম আইনজীবী মুস্তাফিজুর রহমান খান।

তবে আজকের এ রায় চূড়ান্ত নয় বলে গণমাধ্যমে দাবি করেছেন চিত্র নায়ক জায়েদ খান। নিপুণের পক্ষে এই রায়ের পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, ‘নিপুণের রায়ের বিষয়টি যেভাবে ছড়ানো হচ্ছে তাতে ভুল আছে। আদালত কেবল নিপুণের লিভ টু আপিল গ্রহণ করেছেন। এটা কিন্তু চূড়ান্ত রায় না।’

জায়েদ খান বলেন, ‘এখন পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানি হবে। শুনানিতে রায় আমার পক্ষে আসবে কারণ আমি ভোটে নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক।’

চলতি বছরের শুরুতে শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের নির্বাচনে সভাপতি পদে মিশা সওদাগরকে হারিয়ে জয়ী হন অভিনেতা ইলিয়াস কাঞ্চন। সাধারণ সম্পাদক পদে জায়েদ খান ও নিপুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন। নির্বাচন শেষে প্রাথমিকভাবে জায়েদকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়।

জায়েদকে বিজয়ী ঘোষণা করা হলেও ফল মেনে নেননি নিপুণ। তিনি কারচুপির অভিযোগ তোলেন প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। এ নিয়ে পরস্পরের বিরুদ্ধে আইনি লড়াইয়ে নামেন জায়েদ ও নিপুণ। বিষয়টি গড়িয়েছে সর্বোচ্চ আদালত পর্যন্ত।

সর্বশেষ - প্রচ্ছদ

আপনার জন্য নির্বাচিত