নিউজিল্যান্ডের নির্বাচনে নজিরবিহীন সংখ্যাগরিষ্ঠতার পথে জেসিন্ডা অরডান

বাংলার কথা ডেস্ক ০

নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা অরডান নজিরবিহীন সংখ্যাগরিষ্ঠতার পথে এগিয়ে রয়েছেন।
শনিবার অনুষ্ঠিত দেশটির সাধারণ নির্বাচনে ১০ শতাংশ ভোট গণনা শেষে দেখা গেছে অরডানের মধ্য বামপন্থী লেবার পার্টি ৪৯.৯ শতাংশ ভোট পেয়েছে । এর ফলে ১২০ সদস্য বিশিষ্ট পার্লামেন্টে দলটি ৬৪টি আসন পেতে পারে।
নিউজিল্যান্ডে ১৯৯৬ সালে আনুপাতিক ভোটিং সিস্টেম চালুর পর এ পর্যন্ত কোন নেতা সম্পূর্ণ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি।
নির্বাচনের এ ফলাফল একেবারে প্রাথমিক হলেও এ ধারা বজায় থাকলে তা হবে কয়েক দশকে লেবার পার্টির শক্তিমত্তারই পরিচায়ক।
বিরোধী নেতা জুডিথ কলিন্সের মধ্য ডান ন্যাশনাল পার্টি পেয়েছে ২৬. ০ শতাংশ ভোট কিংবা ৩৪ টি আসন। গত প্রায় ২০ বছরের মধ্যে এটি হতে যাচ্ছে তাদের সবচেয়ে খারাপ ফলাফল।
এদিকে শেষ পর্যন্ত অরডান সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পেলেও বিদ্যমান মিত্র গ্রিনস ইতোমধ্যে ৮.৪ শতাংশ ভোট কিংবা ১১ আসন পাওয়ায় জেনিন্ডা খুব সহজেই জয়ের বৈতরনী পার হতে পারবেন।
অরডান এই নির্বাচনকে ‘কোভিড নির্বাচন’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন। প্রচারণাকালে তিনি কোভিড-১৯ নিয়ন্ত্রণে তার সরকারের সাফল্য তুলে ধরেন যা নির্বাচনে ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে।
উল্লেখ্য, ৫০ লাখ জনসংখ্যার দেশ নিউজিল্যান্ডে করোনায় মাত্র ২৫ জন মারা গেছে।
নির্বাচনে নিবন্ধিত ৩৫ লাখ ভোটারের মধ্যে ১৯ লাখ আগাম ভোট দিয়েছে। আগের নির্বাচনের চেয়ে এ সংখ্যা অনেক বেশি।
গত ১৯ সেপ্টেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও অকল্যান্ডে করোনা দেখা দেয়ায় তা একমাস পিছিয়ে দেয়া হয়।

সূত্র:বাসস।

বাংলার কথা/অক্টোবর ১৭, ২০২০

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Follow by Email
%d bloggers like this: