আজ- রবিবার, ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৫ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৬ই রজব, ১৪৪২ হিজরি
বাংলার কথা
Header Banner

নাটোরে সুদের টাকার চাপ সইতে না পেরে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার আত্মহত্যা

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp


নিজস্ব প্রতিবেদক, নাটোর ০
নাটোরের শহরের ঘোড়াগাছার বাসিন্দা মুদি ব্যবসায়ী ও ৬ নম্বর ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ইমতিয়াজ আহম্মেদ বুলবুল(৪৬) আত্মহত্যা করেছেন। রবিবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। তিনি শহরতলীর ঘোড়াগাছা দক্ষিণ এলাকার মৃত খন্দকার লতিফ মিয়ার ছেলে।
এলাকাবাসী ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, শহরতলীর ঘোড়াগাছা গ্রামের হোসেন আলীর স্ত্রী সুদ কারবারী মর্জিনা বেগমের নিকট থেকে ২০ হাজার টাকা সুদে নেন বুলবুল। পরে সুদসহ প্রায় তিন লাখ টাকা পরিশোধ করেন তিনি। তারপরও এক লাখ টাকা দাবী করে তাকে অত্যাচার চালিয়ে আসছিল।
শনিবার রাত ১০টার দিকে সুদ কারবারি মর্জিনা লোকজন দিয়ে তাকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায়। এরপর বুলবুলকে মারপিটে করে দুটি ফাঁকা চেকে স্বাক্ষর নেন। মূলত সুদের টাকার চাপ সইতে না পেরে বুলবুল রবিবার ভোরে গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে।
এ সময় প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর তার মৃত্যু হয়। সেখানে ময়নাতদন্ত শেষে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার লাশ নাটোর এনে গাড়ীখানা গোরস্থানে দাফন করা হয়।
নাটোর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহবায়ক আহম্মেদ সেলিম স্বেচ্ছাসেবক নেতা ইমতিয়াজ আহম্মেদ বুলবুলের আত্মহত্যার প্ররোচনাকারী সুদ ব্যবসায়ী মর্জিনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী জানান। শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি শোক ও সমবেদনা জানান এলাকাবাসীসহ নেতাকর্মীরা।
স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ইমতিয়াজ আহম্মেদ বুলবুলের ভাগিনা সোহাগ জানান, মামা মৃত্যুর আগে ব্যক্তিগত ডায়েরীতে তিনি সুদ ব্যবসায়ী মর্জিনা বেগমের অত্যাচার নির্যাতনের কথা লিখে গেছেন।
এ ব্যাপারে সুদ কারবারী মর্জিনার নাম্বারে একাধিক বার কল করেও তাকে পাওয়া যায়নি।
নাটোর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুল মতিন বলেন, এখন পর্যন্ত এ বিষয়ে থানায় কোন অভিযোগ আসেনি। তবে অভিযোগ পেলে তদন্তস্বাপক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
বাংলার কথা/না.হা/সেপ্টেম্বর ১৩, ২০২০

এই রকম আরও খবর

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn