তিন্নির বাড়িতে ৭ জন করোনা রোগী

বাংলার কথা ডেস্ক ০

মেয়েকে নিয়ে বেশ সময় ধরেই দেশের বাইরে আছেন এক সময়ের আলোচিত অভিনেত্রী শ্রাবন্তী দত্ত তিন্নি। মিডিয়া থেকেও দূরে আছেন অনেক দিন। তবে বিদেশে থেকেও স্বস্তিতে নেই তিনি। আছেন নতুন দুশ্চিন্তায়।

তিন্নি যে বাড়িতে অবস্থান করছেন, সে বাড়িতে সাত জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে বেশ আতঙ্কে দিন কাটছে তার। আতঙ্কেই ওই বাড়িতে দীর্ঘ দেড় মাস ধরে মেয়েকে নিয়ে আটকে আছেন এই অভিনেত্রী।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমে এই অভিনেত্রী জানান, প্রায় দেড় মাস থেকে করোনা থেকে বাঁচতে বাড়িতে গৃহবন্দি হয়ে আছেন। তিনি যে বাড়িতে থাকেন, ওই বাড়িতে সাত জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাই গোটা বাড়িটা প্রশাসন লকডাউন করেছে।

তিন্নি আরও জানান, আপাতত তিনি ও তার মেয়ে ভালো আছেন। তার ফুপু থাকেন কানাডায়। বাবা–মা বাংলাদেশে। প্রতিদিনই ফোনে কথা হয় সবার সঙ্গে। এভাবে কেটে যাচ্ছে তার দিন। তবে বাবা মায়ের জন্য বেশ চিন্তিত তিনি।

উল্লেখ্য, ২০০৬ সালের ২৮ ডিসেম্বর বিয়ে করেন তিন্নি-হিল্লোল। কয়েক বছর পর তাদের সংসার ভেঙে যায়। এরপর ২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারিতে এই অভিনেত্রী দ্বিতীয় বিয়ে করেন আদনান হুদা সাদকে। তবে দ্বিতীয় সংসারও টিকেনি। তবে এই সংসারে একটি মেয়ে আছে তার। নাম ওয়ারিশা, বয়স পাঁচ বছর। মেয়েকে নিয়ে কানাডার মন্ট্রিয়েলের লাসাল শহরে রয়েছেন এই অভিনেত্রী।

সূত্র: ভোরের কাগজ

বাংলার কথা/মে ০৫, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Follow by Email