তানোরে শীতের আমেজে চলছে ভাপা-পিঠা বিক্রি

শফিকুল ইসলাম, তানোর (রাজশাহী) ০
রাজশাহীর তানোরে শীতের আমেজ শুরু হয়েছে। ফলে উপজেলা সদর থেকে শুরু করে গ্রামের বাজারগুলোতে সুগন্ধি ভাপা পিঠা বিক্রির ধুম পড়েছে। সবখানেই চলছে ঐতিহ্যবাহী ভাপা পিঠা বিক্রির ধুম। আমন কাটা-মাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘরের কৃষানিরা ভাপা পিঠা তৈরি করেন। অনেক বাড়িতে সন্ধ্যায় ভাপা পিঠা খেয়ে রাতে আর খাবার খান না।

এছাড়াও নিম্ন আয়ের নারীদের উপার্জনের একমাত্র অবলম্বন ভাপা পিঠার ব্যবসা। বিকেল থেকেই দোকানীরা পসরা সাজিয়ে বসছে। এসব ভাপা পিঠার দোকানিদের দেখে মনে হয় শীত যেন তাদের হাতছানি দিয়ে ডাকছে। আর ভাপা পিঠার স্বাদ নিতে দোকানে ভিড় করছেন সব পেশার মানুষ।

দোকানিরা জানান, শীতে এ পিঠার স্বাদ নিতে ক্রেতারা ভীড় জমান। একদিকে ভাপা পিঠার স্বাদ, অন্যদিকে চুলার আগুন আর জলীয় বাষ্পের উত্তাপে যেন চাঙ্গা হয় ক্রেতার মন। অনেকেই পিঠার দোকানে চুলার পাশে বসেই গরম পিঠা খাচ্ছেন। পরিবারের চাহিদা মেটাতে কেউ কেউ আবার পিঠা কিনে বাড়িতে নিয়ে যাচ্ছেন।

গ্রামাঞ্চলে ঘুরে দেখা গেছে, আমনের নতুন ধান ভেঙে চালের আটা দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে ভাপা পিঠা। মাটির চুলায় খড়ি অথবা জ্বালানি গ্যাস পুড়িয়ে সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত পিঠা তৈরি ও বিক্রি করেন দোকানিরা। অনেক দোকানে বিকেল থেকেই ক্রেতাদের ভাপা পিঠা খেতে দেখা গেছে। এর মধ্যে স্কুল, কলেজ পড়ুয়া শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে শ্রমজীবী মানুষ, রিকশাচালক, ড্রাইভার, শ্রমিকসহ অভিজাত পরিবারের লোকজন শীতের এ পিঠার স্বাদ নিতে আসছেন দোকানে।

তানোর সদরে রহমান কোল্ডস্টোরেজ পার্শ্বে ভাপা বিক্রি করে আসছেন নাজিরা। তিনি বলেন, শীতের এই পিঠা বিক্রি করে প্রতিদিন খরচ বাদে ৫শ থেকে ৬শ টাকা লাভ হয়।

উপজেলার মুন্ডুমালা বাজারে ভাপা পিঠা বিক্রি করছিলেন আনোয়ারা বিবি নামের এক নারী। তিনি জানান, দীর্ঘ দশ বছর ধরে এ ব্যবসা চালাচ্ছেন তিনি। প্রতি বছর কার্তিক মাসের ১০ দিন পার হলেই শুরু করেন ভাপা পিঠা ব্যবসা। তার হাতের তৈরি পিঠা এ অঞ্চলের ক্রেতারাও বেশ পছন্দ ও আগ্রহ সহকারে ক্রয় করছেন ও খাচ্ছেন। তার প্রতিদিনি গড়ে এই পিঠা বিক্রি হয় ৩শ থেকে সাড়ে ৩শ। একেকটি ভাপাপিঠা বিক্রি করেন পাঁচ টাকা দামে। সব খরচ বাদে তার প্রতিদিন আয় হয় ৬শ থেকে ৭শ টাকা।

বাংলার কথা/ডিসেম্বর ০১, ২০১৯

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Follow by Email
%d bloggers like this: