জাতীয় নিরাপত্তা সুরক্ষায় নতুন রফতানি আইন পাস করেছে চীন

ছবি:বাসস।

বাংলার কথা ডেস্ক ০

চীন জাতীয় নিরাপত্তা সুরক্ষায় সংবেদনশীল পণ্য রফতানি কড়াকড়ি করে একটি নতুন আইন পাস করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে বিশেষ করে প্রযুক্তি ক্ষেত্রে উত্তেজনা বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় এই নীতি কৌশল কার্যকর ভূমিকা রাখবে।

শনিবার চীনের শীর্ষ আইনসভায় আইনটি পাস হয়েছে, ১ ডিসেম্বর থেকে এটি কার্যকর হবে এবং যে সব দেশ রফতানি নিয়ন্ত্রণের অপব্যবহার করে এবং জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি সেইসব দেশের বিরুদ্ধে “পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে” বেইজিং এই আইন পাস করেছে।

আইনের প্রকাশিত বিবরণ অনুযায়ী প্রযুক্তিগত ডাটা সম্পর্কিত আইটেমগুলো এই নতুন আইনের বিধি নিষেধের আওতায় আসবে।

বেইজিংয়ের সর্বশেষ এই পদক্ষেপে চীনা টেকফার্মের বিরুদ্ধে ডোনাল্ড ট্রাম্পের লড়াইয়ে আরো বেশী সুযোগ তৈরি করবে। হোয়াইট হাউস জনপ্রিয় প্লাটফরম এবং অ্যাপস টিকটক , ওয়েচ্যাট , প্রযুক্তি জায়ান্ট হুয়াওয়ে এবং চিপসমেকার সেমিকন্ডাক্টর ম্যানুফ্যাকচারিং ইন্টারন্যাশনাল কর্পোরেশনসহ বড় সংস্থার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিয়েছে।

“জাতীয় সুরক্ষা এবং স্বার্থ রক্ষার জন্য প্রণীত” নতুন আইন চীনের একটি রেগুলেটরি টুলসকিড হিসেবে কাজ করবে এবং এতে বিধিনিষেধ আরোপিত টেক রফতানি পণ্য এবং অবিশ্বস্ত আমদানিকারকের তালিকা থাকবে।

আইনে বলা হয়েছে, “যে কোন দেশ বা অঞ্চল চীনের জাতীয় সুরক্ষা এবং স্বার্থকে বিপন্ন করার জন্য রফতানি নিয়ন্ত্রনের পদক্ষেপগুলোর অপব্যবহার করে তাহলে এই আইনে পাল্টা ব্যবস্থা নেয়ার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।”

সূত্র:বাসস।

বাংলার কথা/অক্টোবর ১৮, ২০২০

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Follow by Email
%d bloggers like this: