শনিবার , ১৫ অক্টোবর ২০২২ | ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. খুলনা বিভাগ
  4. খেলাধুলা
  5. চট্টগ্রাম বিভাগ
  6. জাতীয়
  7. ঢাকা বিভাগ
  8. প্রচ্ছদ
  9. ফিচার
  10. বরিশাল বিভাগ
  11. বিনোদন
  12. মতামত
  13. ময়মনসিংহ বিভাগ
  14. রংপুর বিভাগ
  15. রাজনীতি

জাতীয় তামাকমুক্ত সপ্তাহ : রাজশাহীতে রুডো’র পোষ্টার প্রদর্শনী ও লিফলেট বিতরণ

প্রতিবেদক
BanglarKotha-বাংলারকথা
অক্টোবর ১৫, ২০২২ ১১:৫২ পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিনিধি , রাজশাহী :

৯-১৫ অক্টোবর ২০২২ জাতীয় তামাকমুক্ত সপ্তাহ উপলক্ষ্যে প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও এলায়েন্স ফর এফসিটিসি ইমপ্লিমেন্টেশন বাংলাদেশ (এএফআইবি) ও রাজশাহীর সেচ্ছাসেবী উন্নয়ন সংস্থা রুরাল এ্যান্ড আরবান ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন (রুডো) পোষ্টার প্রদর্শনী ও লিফলেট বিতরণ করেছে। গতকাল শনিবার সপ্তম দিনে রাজশাহী মহানগরীর বিভিন্ন এলাকায় লিফলেট বিতরণ ও পোষ্টার প্রদর্শনীর আয়োজন করেছেন। উক্ত কর্মসুচিতে অংশ গ্রহণ করেন রুডো’র নির্বাহী পরিচালক সোহাগ আলী, রুডো আইসিটি প্রকল্প পরিচালক গোলাম হাসান মেহেদী, বৃষ্টি নারী কল্যাণ সংস্থার সভানেত্রী লতফুন নাহার, প্রোগ্রাম অফিসার শাম্মী আখতার প্রমুখ। এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে রুডোর নির্বাহী পরিচালক সোহাগ আলী জানান এ বছর জাতীয় তামাকমুক্ত সপ্তাহের প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে স্বাস্থ্য সেবা উন্নয়নে চাই- ‘রোগী কল্যাণ ফাউন্ডেশন গঠন’। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড কর্তৃক প্রতিবছর সকল তামাক কোম্পানী থেকে ২০১৪ সাল থেকে ১% স্বাস্থ্য উন্নয়ন সারচার্জ আদায় করা হচ্ছে। বর্তমান এ খাতে ১৫ শত কোটি টাকার অধিক অব্যবহৃত বা অলস পড়ে রয়েছে। যে উদ্দেশ্যে এ অর্থ আদায় করা হয়েছে সে উদ্দেশ্য বাস্তবায়ন না হওয়ায় সরকারি ভাবে স্বাস্থ্য সেবা উন্নয়নে কোন কাজে আসছে না।

প্রতিবছর দেশে ১ লক্ষ ৬১ হাজার লোক তামাক ব্যবহারের কারণে মৃত্যুবরণ করে এবং প্রায় ৪ লাখ লোক পঙ্গুত্বের শিকার হয়। এ ছাড়া ক্যান্সার, কিডনী, বক্ষব্যাধিসহ নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে আর্থিকভাবে নিঃস্ব হচ্ছে অসংখ্য পরিবার। শ্রমিক কল্যাণ ফাউন্ডেশনের ন্যায় এ সকল নিঃস্ব পরিবারকে স্বাস্থ্য উন্নয়ন সারচার্জ থেকে প্রাপ্ত অর্থ থেকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা গেলে তামাক ব্যবহারে মৃত্যুবরণকৃত ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে স্বচ্ছলতায় ফিরিয়ে আনতে সহায়ক ভূমিকা রাখতে পারে।

 

এছাড়া স্বাস্থ্য উন্নয়নে সারচার্জের এ বিপুল পরিমান অর্থ দিয়ে বিশেষায়িত ও মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আধুনিক ও উন্নত যন্ত্রপাতি ক্রয় করে স্থাপন করা হলে সরকারি ভাবে উন্নত স্বাস্থ্য সেবা প্রদানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা সম্ভব হবে। প্রাপ্ত সারচার্জের অর্থ দিয়ে স্বাস্থ্য বীমা, চিকিৎসা গবেষণা, স্বাস্থ্য শিক্ষা কার্যক্রম, অসংক্রামক রোগ প্রতিরোধে ও তামাক নিয়ন্ত্রণে কার্যরত এনজিওদের আর্থিক অনুদান প্রদান করা গেলে টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সহজতর হবে। এ সকল নানা কারণে জনস্বাস্থ্য রক্ষায় ও স্বাস্থ্য সেবা উন্নয়নে তামাক কোম্পানী থেকে প্রাপ্ত স্বাস্থ্য উন্নয়ন সারচার্জের (১%) অর্থ দিয়ে ‘রোগী কল্যাণ ফাউন্ডেশন’ গঠন এখন সময়ের দাবী।

সর্বশেষ - প্রচ্ছদ

আপনার জন্য নির্বাচিত