আজ- শুক্রবার, ২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৪ই রজব, ১৪৪২ হিজরি
বাংলার কথা
Header Banner

গোদাগাড়ী পৌরসভা নির্বাচনের অগ্রীম প্রচারণায় ব্যস্ত সম্ভাব্য প্রার্থীরা

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp


গোদাগাড়ী (রাজশাহী) প্রতিনিধি o
রাজশাহীর গোদাগাড়ী পৌরসভা নির্বাচনের অগ্রিম প্রচার প্রচারণা শুরু করেছে সম্ভাব্য প্রার্থীরা। তফসিল ঘোষণা না হলেও নির্বাচনি প্রচারে সরব হয়ে উঠেছে তারা। আগামী পৌর নির্বাচনকে ঘিরে পৌর এলাকার শুরু হয়েছে আলোচনাসহ নানা গুনজন। এছাড়াও আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ বিভিন্ন দলের একাধিক সম্ভাব্য মেয়র প্রার্থী ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার আশায় ইতোমধ্যে মাঠে নেমে পড়েছেন।
নির্বাচনকে ঘিরে দলীয় মনোয়ন পেতে প্রার্থীরা নিজ নিজ দলের নেতাদের সাথে বিভিন্ন ভাবে যোগযোগ করে চলেছেন। সর্বত্রই আলোচনা হচ্ছে কে পাচ্ছেন এবার কে পাচ্ছেন মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন। সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে নিজেদের পরিচিতির জন্য পৌরসভা এলাকার বিভিন্ন গ্রামে, পাড়া-মহল্লায় কর্মী ও সমর্থকদের সংগঠিত করছেন। পৌরসভার উন্নয়নে নানা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন পৌরবাসীকে।
এবারে গোদাগাড়ী পৌরসভায় সম্ভাব্য মেয়র তালিকায় এগিয়ে রয়েছেন নতুন তরুণ প্রার্থীসহ বিগত অনুষ্ঠিত নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি উভয়ই অংশগ্রহণ করা প্রার্থীরা। বর্তমান মেয়র পদে রয়েছেন আওয়ামীলীগের জয়ী প্রার্থী মনিরুল ইসলাম বাবু।
আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন- গোদাগাড়ী পৌর যুবলীগের সভাপতি, ক্রীড়া ব্যাক্তিত্ব, শিক্ষা অনুরাগী ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান তরুণ নেতৃত্ব অধ্যাপক আকবর আলী, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি ওয়েজ উদ্দিন বিশ্বাস ও বর্তমান মেয়র মনিরুল ইসলাম বাবু।
বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থীর মধ্যে রয়েছেন- পৌর বিএনপির সাবেক সিনিঃ সহ-সভাপতি গোলাম কিবরিয়া রুলু ও পৌর বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাবেক মেয়র আনোয়ারুল ইসলাম।
রাজনৈতিকভাবে গোদাগাড়ী পৌরসভা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিধায় বর্তমান আওয়ামী লীগের অনুসারীগন ক্লিন ইমেজের কাউকে মনোনয়ন দিয়ে ভোটের মাধ্যমে এই পদটি ধরে রাখতে ওঠে পড়ে লেগেছেন।
আগামী পৌরসভা নির্বাচন নিয়ে তরুণ নেতৃত্ব অধ্যাপক আকবর আলী বলেন, তিনি দলীয় মনোনয়ন পাবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন পৌরবাসী তাকে মেয়র হিসেবে নির্বাচিত করবেন বলে আশাবাদী। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, দল যদি তাকে মনোনয়ন না দেয় তাহলে সে দলের সিদ্ধান্ত কে মেনে নিবেন। দলের সিদ্ধান্তের বাইরে যাবেন না তিনি।
এদিকে সাধারন ভোটারদের মধ্যে আলোচনা হচ্ছে এবার তারা ক্লিন ইমেজের তরুন প্রার্থীকে পৌর মেয়র হিসাবে দেখতে চান।
এ বিষয়ে সাবেক এমপি ও রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াদুদ দ্বারা বলেন,‘ আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থীরা মাঠে রয়েছেন। দলীয়ভাবে যে প্রার্থী কে মনোনয়ন দেয়া হবে, নেতাকর্মীরা তাদের পাশেই থাকবেন।’
পৌরসভা নির্বাচন সম্পর্কে রাজশাহী জেলা বিএনপির সদস্য সচিব বিশ্বনাথ সরকার জানান, আগামী পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে কি না তা দলের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদ সিদ্ধান্ত দেবে। তবে নির্বাচনে অংশ নেয়ার জন্য বিএনপি নেতারা প্রস্তুত আছেন বলে জানান তিনি।
বাংলার কথা/সেলিম সানোয়ার পলাশ/ সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২০

এই রকম আরও খবর

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn