বৃহস্পতিবার , ২৭ অক্টোবর ২০২২ | ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. খুলনা বিভাগ
  4. খেলাধুলা
  5. চট্টগ্রাম বিভাগ
  6. জাতীয়
  7. ঢাকা বিভাগ
  8. প্রচ্ছদ
  9. ফিচার
  10. বরিশাল বিভাগ
  11. বিনোদন
  12. মতামত
  13. ময়মনসিংহ বিভাগ
  14. রংপুর বিভাগ
  15. রাজনীতি

খেতে থেকে ছাগল আনতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার কিশোরী, গ্রেপ্তার-১

প্রতিবেদক
BanglarKotha-বাংলারকথা
অক্টোবর ২৭, ২০২২ ৫:৫৮ অপরাহ্ণ

নোয়াখালী প্রতিনিধি :
নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে এক কিশোরীকে (১৫) ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
গ্রেপ্তারকৃত মো.মহিমকে (২১) লক্ষীপুর জেলার রামগতি উপজেলার চরদরবেশ এলাকার মৃত সাহাব উদ্দিনের ছেলে।
বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) সন্ধ্যার দিকে উপজেলার চর এলাহী ইউনিয়ন থেকে অভিযুক্ত আসামিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এর আগে, গত বুধবার ২৬ অক্টোবর দুপুর ২টার দিকে উপজেলার চরএলাহী ইউনিয়নের চরউমেদ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
ভুক্তভোগী ও মামলা সূত্রে জানা যায়, নির্যাতিত কিশোরী তার বাবার বাড়িতে গৃহস্থালির কাজ করে এবং ৩টি ছাগল লালন পালন করে । অভিযুক্ত যুবক তাহাদের একই এলাকার বাসিন্দা। সে ব্রিকফিল্ডে কাজ করে। ওই কিশোরীকে রাস্তাঘাটে চলাফেরা করার সময় নানা ধরনের খারাপ কতাবার্তা বলে। গত মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে নির্যাতিত কিশোরীকে মহিম খারাপ কাজের প্রস্তাব দেয়। রাত ১০টার দিকে শহিদ মাঝির বাড়ির পাশে যেতে বলে। ভিকটিম তার কথামত রাতে ওই স্থানে না যাওয়ায় সে ক্ষোভের বশবর্তী হয়ে তার ক্ষতি করার জন্য অপেক্ষা করতে থাকে। বুধবার দুপুর ২টার দিকে ওই কিশোরী চরউমেদ গ্রামে বাড়ির পাশের একটি খেতে ছাগল আনতে যায়। তখন মহিম তাকে একা পেয়ে খেতে থেকে মুখ চেপে ধরে কিল্লার উপরে নিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে।
কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি) মো.সাদেকুর রহমান বলেন, এ ঘটনায় ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে নারীও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন। মামলার একমাত্র আসামি মহিমকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। ভুক্তভোগী নারীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সর্বশেষ - প্রচ্ছদ

আপনার জন্য নির্বাচিত