আজ- শনিবার, ৬ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২২শে রজব, ১৪৪২ হিজরি
বাংলার কথা
Header Banner

কেশরহাটে এমপি’র বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp

নিজস্ব প্রতিবেদক o

চলতি মাসের ৩০ তারিখ রাজশাহীর কেশরহাট পৌরসভার নির্বাচন। এই নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী প্রভাষক খুশবর রহমান ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন।

 

 

এই নির্বাচনে প্রচারণায় বাধা এবং স্থানীয় সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিনের বিরুদ্ধে নির্বাচনী বিধি ভেঙ্গে কেশরহাটে প্রচারণা এবং নৌকার প্রার্থীকে সাথে নিয়ে মসজিদ উদ্বোধন ও শীতবস্ত্র বিতরণ করার অভিযোগ উঠেছে। আর এসব অনুষ্ঠানে এমপি আয়েন নৌকা প্রতীকে ভোট চাচ্ছেন। বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) দুপুর ১২টায় সংবাদ সম্মেলন করে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী প্রভাষক খুশবর রহমান এসব অভিযোগ করেন।

 

প্রার্থীর হয়ে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সহ-সম্পাদক ও রাজশাহী মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলন।

 

তিনি উল্লেখ করেন, নির্বাচন চলাকালীন সময়ে কোনো সংসদ সদস্য নির্বাচনী এলাকায় প্রবেশ করতে পারবেন না। তিনি কোনোভাবেই দলীয় প্রার্থী তথা কারো হয়ে নির্বাচনী প্রচারণা করতে পারবেন না। কিন্তু এমপি আয়েন উদ্দিন নির্বাচনী আইন ও আচরণবিধি ভঙ্গ করে দলীয় প্রার্থীকে নিয়ে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রম পরিচালনা করছেন, যা নির্বাচনী আচরণবিধির চরম লঙ্ঘন।

 

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের  অভিযোগ নিয়ে এ মাসের ১৭ তারিখ রাজশাহীর সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসারকে লিখিত অভিযোগ করা হলেও এর কোনো প্রতিকারমূলক ব্যবস্থা নেননি তিনি ।

 

সংবাদ সম্মেলনে আরো উল্লেখ করা হয়, গত ১৭ জানুয়ারি দুপুর ১২টায় সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন সাঁকোয়া-বাকশৈল কামিল মাদ্রাসা চত্বরের এক অনুষ্ঠানে মোহনপুর মডেল মসজিদ ও ইসলামীক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। এসময় তিনি দলীয় প্রার্থী শহিদুজ্জামান শহিদকে ভোট দেয়ার জন্য জনগণের প্রতি আহবান জানান। সেইসাথে সেখানে শহিদের পক্ষে ৫০০ কম্বল ও চাদর বিতরণ করেন তিনি। এছাড়াও বিভিন্ন পাড়া-মহল্লায় তিনি নির্বাচনী প্রচারণা করবেন বলে ঘোষণা দেন। এজন্য সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয় সংবাদ সম্মেলন থেকে।

 

এছাড়া সংসদ সদস্য যেন আর নির্বাচনী প্রচারণায় না নামেন, তা নিশ্চিত করতে সংবাদ সম্মেলন থেকে দাবি জানানো হয়। একইসাথে ভোটের সুষ্ঠু পরিবেশ সৃষ্টি, নির্বাচনের দিন ভোটাররা যাতে ভোট কেন্দ্রে নির্বিঘ্নে যেতে পারে, তার ব্যবস্থা নিশ্চিত এবং বিএনপি’র পোলিং এজেন্টরা যেন নির্বিঘ্নে কেন্দ্রে দায়িত্ব পালন করতে পারেন, তার ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে নির্বাচন কমিশন ও রিটার্নিং কর্মকর্তার প্রতি দাবি জানানো হয়। সেইসাথে আচরণবিধি লঙ্ঘনের জন্য সরকার দলীয় প্রার্থীর প্রার্থীতা বাতিল করারও দাবি জানানো হয় সংবাদ সম্মেলন থেকে। নির্বাচন শেষে কেন্দ্র থেকেই ফলাফল ঘোষণা এবং হেলমেট বাহিনীকে নির্মূল করারও দাবি জানানো হয় সংবাদ সম্মেলন থেকে।

 

বিএনপি নেতা কামরুজ্জামান হেনার সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক, রাজশাহী মহানগর বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সিটি মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও রাজশাহী জেলা বিএনপি’র আহবায়ক আবু সাঈদ চাঁদ, বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও রাজশাহী জেলা বিএনপি’র যুগ্ম আহবায়ক সাইফুল ইসলাম মার্শাল, জেলা বিএনপি’র আহবায়ক কমিটির সদস্য সচিব বিশ্বনাথ সরকার ও সদস্য অ্যাডভোকেট তোফাজ্জল হোসেন তপু। সংবাদ সম্মেলন পরিচালনা করেন জেলা বিএনপি’র সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও বর্তমান আহবায়ক কমিটির সদস্য গোলাম মোস্তফা মামুন।

 

সংবাদ সম্মেলনে কেশরহাট পৌরসভার সাবেক মেয়র আলাউদ্দিন আলো, বিএনপি নেতা আনোয়ার হোসেন উজ্জল, মোহনপুর উপজেলা বিএনপি’র আহবায়ক মাহবুব অর রশিদ, সদস্য সচিব বাচ্চু রহমান, কেশরহাট পৌর বিএনপির সদস্য সচিব নিজামুল হক, ধুরইল ইউপি চেয়ারম্যান কাজিম উদ্দিন, কেশরহাট পৌর যুবদলের আহবায়ক শাহীন আলা, যুগ্ম আহবায়ক মশিউর রহমান ও জেলা ছাত্রদলের সিনিয়র সহ-সভাপতি শাহারিয়ার আলম বিপুলসহ মোহপুর উপজেলা ও কেশরহাট পৌরসভার বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের অন্যান্য নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

 

বাংলার কথা/পিআর/জানুয়ারি ২১, ২০২১

এই রকম আরও খবর

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn