করোনাকালে সুস্থ থাকতে ডায়াবেটিস রোগীরা কী করবেন

বাংলার কথা ডেস্ক ০

করোনা সংক্রমণে গোটা বিশ্ব জর্জরিত। কোনও কিছুতেই এর সংক্রমণ ঠেকানো যাচ্ছে না। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনা রোগীদের মধ্যে সুস্থতার হার বাড়লেও কারও কারও জন্যে এটি বিপজ্জনক হয়ে উঠছে। বিভিন্ন গবেষণায় জানা গেছে, কোভিড-১৯ এর বাড়াবাড়ির মূলে রয়েছে অনিয়ন্ত্রিত ডায়াবেটিস। যার ফলে অনেক রোগীই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছেন। চিকিৎসকদের মতে, ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে না থাকলে করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা বাড়ার পাশাপাশি বেড়ে যায় রোগের জটিলতাও। এ কারণে ডায়াবেটিস রোগীদের বিশেষ সতর্ক থাকা প্রয়োজন। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে ডায়াবেটিস রোগীদের যেসব নিয়ম অনুসরণ করা জরুরি-
১. মাস্ক ব্যবহার, হাত ধোওয়া, শারীরিক ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ কোভিডের সুরক্ষাবিধি মেনে চলুন।
২. এ সময় বাড়ির বাইরে না যাওয়াই ভালো। বাড়ির কাজ অন্যান্য সুস্থ সদস্যদের দিয়ে করান।
৩. বাইরে বের হলে তিন স্তরবিশিষ্ট মাস্ক ব্যবহার করুন।
৪. সামাজিক দূরত্ব মেনে চলুন। বাড়ি ফেরার সঙ্গে সঙ্গে ভালো করে হাত-পা-মুখ সাবান পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
৫. ব্যবহৃত পোশাক পরিবর্তন করে সাবান পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
৬. ধূমপান-মদ্যপান বন্ধ রাখুন। এগুলি রোগের জটিলতা আরও বাড়ায়।
৭. অন্যান্য দিনের মতোই রুটিন মেনে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ডায়াবেটিসের ওষুধ খেতে থাকুন।
৮. প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন।
৯. সকাল -সন্ধ্যায় ব্যায়াম করুন। এতে ওজন নিয়ন্ত্রিত থাকবে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বৃদ্ধি পাবে।
১০. হঠাৎ করে সুগার বেড়ে গেলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।
১১. বাড়িতে কোন অসুস্থ ব্যক্তি থাকলে তার থেকে নিজেকে দূরে রাখুন।
করোনার উপসর্গ দেখা দিলে কী করবেন-
১. করোনার সামান্য উপসর্গ দেখা দিলে দ্রুত চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করুন।
২. ভয় না পেয়ে, করোনা শনাক্তকরনের পরীক্ষা না হওয়া পর্যন্ত চিকিৎসকের নির্দেশ অনুযায়ী আলাদা ঘরে থাকুন।
৩. আইসোলেশনে থাকার সময় চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ডায়াবেটিসের ওষুধ খান।
৪. করোনা চিকিৎসা চলাকালীন সময়ে ডায়াবেটিসের কোন কোন ওষুধ আপনি খেয়েছেন তা চিকিৎসককে জানান। এতে আপনার চিকিৎসার ক্ষেত্রে আরও সুবিধা হবে।

সূত্র : বোল্ড স্কাই।

বাংলার কথা/ আগষ্ট ১৩, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Follow by Email
%d bloggers like this: