বুধবার , ১৯ অক্টোবর ২০২২ | ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯
  1. অর্থনীতি
  2. আন্তর্জাতিক
  3. খুলনা বিভাগ
  4. খেলাধুলা
  5. চট্টগ্রাম বিভাগ
  6. জাতীয়
  7. ঢাকা বিভাগ
  8. প্রচ্ছদ
  9. ফিচার
  10. বরিশাল বিভাগ
  11. বিনোদন
  12. মতামত
  13. ময়মনসিংহ বিভাগ
  14. রংপুর বিভাগ
  15. রাজনীতি

এইচএসসি-সমমানে ঝরে গেছে দুই লাখ শিক্ষার্থী

প্রতিবেদক
BanglarKotha-বাংলারকথা
অক্টোবর ১৯, ২০২২ ৬:০৬ অপরাহ্ণ

নিউজ ডেস্ক :
সারাদেশে আগামী ৬ নভেম্বর শুরু হচ্ছে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা। এ পরীক্ষায় ২০২১ সালের তুলনায় ১ লাখ ৯৬ হাজার ২৮৩ জন শিক্ষার্থী ঝরে গেছে। একইসাথে মোট প্রতিষ্ঠান কমেছে ২ টি, কেন্দ্রের সংখ্যা বেড়েছে ২৮ টি।

বুধবার (১৯ অক্টোবর) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে এইচএসসি-সমমান পরীক্ষার আইনশৃঙ্খলা ও নিরাপত্তা কমিটির সভা শেষে সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান শিক্ষামন্ত্রী দিপু মনি।

শিক্ষামন্ত্রী দিপু মনি বলেন, গত বছরের তুলনায় ২০২২ সালের এইচএসসি-সমমান পরীক্ষায় ১ লাখ ৯৬ হাজার ২৮৩ পরীক্ষার্থী কমে গেছে। দুটি প্রতিষ্ঠান কমলেও পরীক্ষা কেন্দ্রের সংখ্যা ২৮টি বেড়েছে।

এর কারণ হিসেবে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে ক্লাসের পাঠদান বন্ধ থাকায় পেছনের কয়েকটি পরীক্ষা সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে নেয়া হয়েছে। সে কারণে পাশের হার বেড়ে যায় বলে অনিয়মিত শিক্ষার্থীর সংখ্যা কমে গেছে।

সে কারণে এবার প্রায় দুই লাখ শিক্ষার্থীর সংখ্যা কমে গেছে। এটি স্বাভাবিক পরিস্থিতি বলেও দাবি করেন তিনি। তার মধ্যে কারো কারো বাল্যবিবাহ, কর্মস্থলে যোগদান করেছে বলেও স্বীকার করেন তিনি।

তবে এসব শিক্ষার্থীরা গত দুই বছর আগে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করলেও তারা এইচএসসি পরীক্ষায় আর অংশ নেয়নি বলে বিভিন্ন শিক্ষা বোর্ড সূত্রে জানা গেছে।

দেশের ১১ শিক্ষা বোর্ডে পরীক্ষার্থী:

এবারের পরীক্ষায় ১১ টি শিক্ষা বোর্ডের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ৯ হাজার ১৮১ টি প্রতিষ্ঠানে ২ হাজার ৬৪৯ টি কেন্দ্রে মোট ১২ লাখ ৩ হাজার ৪০৭ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করছেন। এদের মাঝে ৬ লাখ ২২ হাজার ৭৯৬ জন ছাত্র এবং ৫ লাখ ৮০ হাজার ৬১১ জন ছাত্রী রয়েছে।

সাধারণ ৯টি শিক্ষা বোর্ড :

৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, ৪ হাজার ৬৪৭টি প্রতিষ্ঠানে ১ হাজার ৫২৮টি কেন্দ্রে ৯ লাখ ৮৫ হাজার ৭১৩ জন পরিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছেন। এদের মাঝে ৪ লাখ ৮২ হাজার ১৮৩ জন ছাত্র এবং ৫ লাখ ৩ হাজার ৫৩০ জন ছাত্রী রয়েছে। তার মধ্যে বিজ্ঞান বিভাগে ২ লাখ ৪০ হাজার ৫০৬ জন, মানবিক বিভাগে ৫ লাখ ৫৭ হাজার ৬৭১ জন এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ১ লাখ ৮৭ হাজার ৫৩৬ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে।

মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ড :

মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডে ২ হাজার ৬৭৮টি প্রতিষ্ঠানে ৪৪৮টি কেন্দ্রে ৯৪ হাজার ৭৬৩ জন পরিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছেন। এদের মাঝে ৫১ হাজার ৬৯৫ জন ছাত্র এবং ৪৩ হাজার ৬৮ জন ছাত্রী রয়েছে। এছাড়া কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের পরিসংখ্যান অনুযায়ী ১ হাজার ৮৫৬ টি প্রতিষ্ঠানে ৬৭৩ টি কেন্দ্রে ১ লাখ ২২ হাজার ৯৩১ জন পরিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। এদের মাঝে ৮৮ হাজার ৯১৮ জন ছাত্র এবং ৩৪ ১৩ জন ছাত্রী রয়েছে।

বিদেশে আট কেন্দ্রে:

দেশের বাহিরে মোট আটটি দেশে এইচএসসি-সমমান পরীক্ষা আয়োজন করা হবে। তার মধ্যে জেদ্দায় ৫১ জন, রিয়াদে ২০ জন, ত্রিপলীতে ৪ জন, দোয়ায় ৬২ জন, আবুধাবীতে ২৭ জন, দুবাইয়ে ২১ জন, বাহরাইনে ১৫ জন এবং সাহাম, ওমানে ২২ জন মিলে মোট ২২২ জন পরীক্ষার্থী রয়েছে।

শিক্ষামন্ত্রী জানান, এবার পরীক্ষা শুরুর কমপক্ষে ৩০ মিনিট আগে পরীক্ষার্থীদের কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে। পরীক্ষা শুরুর ২৫ মিনিট আগে এসএমএসের মাধ্যমে সংশ্লিষ্টদের নিকট প্রশ্নপত্রর সেট কোড জানিয়ে দেয়া হবে।

ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ব্যতীত অন্য কেউ মোবাইল ফোন বা ইলেকট্রনিক ডিভাইস নিয়ে কেন্দ্রে প্রবেশ করে পারবেন না। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে পরীক্ষা আয়োজন করা হবে। অভিভাবকদেরও সামাজিক দূরত্ব রেখে চলাফেরার অনুরোধ করা হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, দৃষ্টি প্রতিবন্ধী, প্রতিবন্ধী এবং যাদের হাত নেই এমন প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থী স্ক্রাইব (শ্রুতি লেখ) সঙ্গে নিয়ে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। এ ধরণের পরীক্ষার্থীদের এবং শ্রবণ প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থীদের জন্য অতিরিক্ত ২০ মিনিট সময় দেয়া হবে।

এ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুবজমুক্ত ও নকলমুক্ত পরিবেশে সুষ্ঠু, সুন্দরভাবে আয়োজনে আগামী ৩ নভেম্বর থেকে আগামী ১৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার ঘোষণা দেয়া হয়েছে। পরীক্ষা আয়োজনে সকলের সহযোগীতা আহ্বান করেন শিক্ষামন্ত্রী।

সর্বশেষ - প্রচ্ছদ