আশা করছি শান্তি প্রক্রিয়ায় যোগ দেবে সৌদি আরব: মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বুধবার ওয়াশিংটনে পম্পেওর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী।ছবি:পার্সটুডে।

বাংলার কথা ডেস্ক ০

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও সৌদি আরবের কাছে অস্ত্র বিক্রিকে বৈধতা দিতে গিয়ে ইরানের বিরুদ্ধে অতীত অভিযোগগুলোর পুনরাবৃত্তি করেছেন। তিনি বলেছেন, ইরান পশ্চিম এশিয়া (মধ্যপ্রাচ্য) ও সৌদি আরবের নিরাপত্তাকে হুমকিগ্রস্ত করছে এবং ইয়েমেনের হুথি যোদ্ধাদের সমর্থন দিচ্ছে।

পম্পেও স্থানীয় সময় বুধবার ওয়াশিংটন সফররত সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সাল বিন ফারহানের সঙ্গে এক বৈঠকে ইরানের বিরুদ্ধে এসব উসকানিমূলক কথাবার্তা বলেন।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, গত বছর সৌদি আরবের দু’টি তেল স্থাপনায় যে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা হয়েছিল তা ইরান থেকে নিক্ষেপ করা হয়েছিল।এ ছাড়া, ইয়েমেনের হুথিরা সৌদি আরবের অভ্যন্তরে হামলা চালানোর কাজে যে ড্রোন ব্যবহার করে তার প্রযুক্তি তেহরান তাদেরকে দিয়েছে।

মাইক পম্পেও ইসরাইলের সঙ্গে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইনের সাম্প্রতিক সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণের প্রতি ইঙ্গিত করে এই শান্তি প্রক্রিয়ায় যোগ দিতে সৌদি আরবের প্রতি আহ্বান জানান।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, তেল আবিবের সঙ্গে রিয়াদের আনুষ্ঠানিক সম্পর্ক স্থাপনের ঘোষণাও এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। সে লক্ষ্যকে সামনে রেখে সৌদি আরব তার দুই মিত্র আরব দেশকে দিয়ে ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করিয়ে আরব জনমত যাচাই করে নিয়েছে বলে তারা মন্তব্য করেছেন।

সূত্র:পার্সটুডে।

বাংলার কথা/অক্টোবর ১৫, ২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Follow by Email
%d bloggers like this: