আজ- শনিবার, ৬ই মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ২১শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২২শে রজব, ১৪৪২ হিজরি
বাংলার কথা
Header Banner

অধ্যাপক হাছানাতের শিক্ষকতা জীবনের ২৫ বছর উপলক্ষে স্মৃতিচারণ

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp

রাবি প্রতিনিধি ০

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রফেসর হাছানাত আলীর শিক্ষকতা জীবনের ২৫ বছরকে স্মরণ করে স্মৃতিচারণ করা হয়েছে। শনিবার (৬ ফেব্রুয়ারি) রাত ৮টায় অনলাইনে জুম মিটিংয়ে একটি ওয়েবেনিয়ারের আয়োজন করে তার শিক্ষার্থীরা। অনুষ্ঠানের শুরুতে কেক কেটে মিলনমেলার উদ্বোধন করা হয়।

 

এসময় ভার্চুয়ালী তার শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও শুভানুধ্যায়ীরা উপস্থিত ছিলেন। তাছাড়া অনুষ্ঠানের মাঝে মাঝেই সংগীত পরিবেশন অনুষ্ঠানে এনে দেয় নতুন মাত্রা।

 

অনুষ্ঠানে অধ্যাপক হাছনাতের দীর্ঘ কর্মজীবনের বিভিন্ন সময়ের স্মৃতি রোমন্থন করেন টিএমএসএসের প্রধান নির্বাহী অধ্যাপক ড. হোসনে আরা বেগম, কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক খন্দকার সাফায়েত হোসেন, পুন্ড ইউনিভার্সিটির ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য আ ন ম রেজাউল ইসলাম, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি অধ্যাপক আমজাদ হোসাইন, বগুড়া-৪ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মোহাম্মদ মোশাররফ হোসেন, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক প্রক্টর অধ্যাপক শামছুল আলম, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক খাইরুল ইসলাম, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক জাকির হোসেন, হাজী দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক জাহাঙ্গীর আলম, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক রাজু আহমেদ, ব্যাংক কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম, টিএমএসএসের উপ-নির্বাহী পরিচালক ড. মতিউর রহমান, নড়াইলের জেলা ও দায়রা জজ মুন্সি মো. মশিউর রহমান, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. হোসনে জাহান, মালয়েশিয়ায় চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক মাহবুব আলম শাহ, নিউইয়র্কের পুলিশ কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন প্রমুখ।

 

এসময় বক্তারা অধ্যাপক হাছনাতের জীবনের বিভিন্ন সময়ের স্মৃতিরোমন্থন করে বলেন, অধ্যাপক হাছানাত একজন চমৎকার মানুষ। তার সাথে চলতে পেরে আমরা গর্বিত। উত্থান-পতনের মধ্যে দিয়ে জীবনের শুরুটা হলেও দমে যাননি তিনি। তাছাড়া পারিবারিক জীবনেও সুখী তিনি। এই গুণি অধ্যাপকের ভবিষ্যত জীবনে মঙ্গল ও দীর্ঘায়ু কামনা করেন তারা।

 

অনুষ্ঠানের সমাপনিতে অধ্যাপক হাছানাত বলেন, কোভিড জয় করে আমার শিক্ষার্থীরা দিনটিকে স্মরণ করছে। দীর্ঘ শিক্ষকতা জীবনে এটি আমার জন্য একটি বড় অর্জন। তিনি বলেন, ভালো শিক্ষক হওয়ার চেয়ে ভালো মানুষ হওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই আমার শিক্ষার্থীরা ভালো পেশাজীবী হওয়ার পাশাপাশি ভালো মানুষ হবে এমনটাই প্রত্যাশা করি।

 

এছাড়া, সিঙ্গাপুর, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, মালয়েশিয়া ও ভারত থেকে অধ্যাপক হাছানাতের শিক্ষার্থীরাসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও সাংবাদিকরা এ স্মৃতিচারণে যুক্ত হয়।

 

উল্লেখ্য, ২৫ বছর আগে ৬ ফেব্রুয়ারি অধ্যাপক হাছানাত আলী ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে হিসাববিজ্ঞান ও তথ্য পদ্ধতি বিভাগে প্রভাষক হিসেবে শিক্ষকতা জীবন শুরু করেন। এর আগে তিনি একই বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা বিভাগ থেকে অনার্স ও মাস্টার্স উভয় পরীক্ষায় মেধা তালিকায় প্রথম স্থান অধিকার করেন। তিনি বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ফ্যাকাল্টিতে প্রথম স্থান অর্জন করে চ্যান্সেলর স্বর্ণপদক অর্জন করেন।

 

হাছানাত আলী ১৯৯৯ সালে সহকারী অধ্যাপক হিসেবে পদোন্নতি লাভ করেন। পরবর্তীতে তিনি ২০০৪ সালের ১ আগস্ট রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনে (আইবিএ) সহকারী অধ্যাপক হিসেবে যোগদান করেন।

 

২০০৭ সালে প্রফেসর হাছানাত আলী ‘ইসপ্যাক্ট অব মাইক্রোক্রেডিট অন সোসিও ইকোনোমিক ডেভেলপমেন্ট অব বাংলাদেশ: এ স্টাডি অন টিএমএসএস’ শিরোনামের ওপর গবেষণা করে পিএইচডি ডিগ্রী অর্জন করেন। একই বছর তিনি সহযোগী অধ্যাপক এবং ২০১৩ সালে প্রফেসর হিসেবে পদোন্নতি লাভ করেন। প্রফেসর হাছানাত আলী শিক্ষকতার পাশাপাশি সামাজিক কর্মকান্ডসহ বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে সমসাময়িক বিষয়ে নিয়মিত লিখে থাকেন এবং টেলিভিশন আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন।

 

বাংলার কথা/ফেব্রুয়ারি ০৭, ২০২১

এই রকম আরও খবর

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn